বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব পরিষদের কেন্দ্রীয় সহ-সম্পাদক হলেন নোমান সিকদার

বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব পরিষদের কেন্দ্রীয় সহ-সম্পাদক হলেন নোমান সিকদার

রিদুয়ানুল হক, স্টাফ রিপোর্টারঃ বর্তমান প্রজন্মের কাছে বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিণী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের সঠিক তথ্য পৌঁছে দিতে নব-গঠিত সংগঠন বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব পরিষদ স্থাপন করা হয়। উক্ত কেন্দ্রীয় বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব পরিষদের কেন্দ্রীয় সহ-সম্পাদক হলেন সাতকানিয়া উপজেলা আওতাধীন ৭নং মাদার্শা ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাতকানিয়া মাদার্শার কৃতিসন্তান নোমান সিকদার। সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোঃ মঈনুল ইসলাম মামুনের স্বাক্ষরিত এক ব্রিফিং এই বিষয়ে নিশ্চিত করেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মঈনুল ইসলাম মামুন বলেন, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব পরিষদ সংগঠনটি স্থাপন করার প্রধান উদ্দেশ্য হল বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বঙ্গবন্ধু স্ব-শরীরে রাজপথের রাজনীতির পিছনে অন্যতম উৎসাহদাতা ছিলেন ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের রাজনীতির সফলতার কারিগর ছিলেন তিনি। অথচ বর্তমান প্রজন্মের অধিকাংশ ছেলে মেয়েরাই এ বিষয়ে জ্ঞাত নয় বলে আমরা বঙ্গমাতার বিষয়ে বর্তমান প্রজন্মের কাছে সঠিক তথ্য পৌঁছে দিতে এ সংগঠনটি প্রতিষ্ঠাতা করা হয়েছে। পাশাপাশি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নকে জনসাধারনের কাছে তুলে ধরা ও বিভিন্ন সামাজিক কাজ কর্মে এ সংগঠন সক্রিয় থাকবে তিনি জানান। কেন্দ্রীয় সহ-সম্পাদক নির্বাচিত হওয়াতে নোমান সিকদারের বক্তব্য জানতে চাইলে তিনি মুঠোফোনে বলেন সর্বপ্রথম আমি বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মঈনুল ইসলাম মামুনকে আন্তরিক ভাবে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞ প্রকাশ করতেছি আমাকে কেন্দ্রীয় সহ-সম্পাদক নির্বাচিত করায়। আমি একজন বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক, আমি ছাত্র জীবন থেকে রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলাম। যার সুফল আমি অর্জন করেছি, আপনি জ্ঞাত আছেন আমি ৭নং মাদার্শা ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্বে আছি,আমি নিষ্ঠার সহিত এই দায়িত্ব পালন করতে একটুও অবেহলা করি নেই। সুতরাং বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব পরিষদের আমার উপর অর্পিত দায়িত্বে একটুও পিছ পা হব না ইনশাআল্লাহ! বঙ্গমাতা সম্পর্কে নিজে জেনে আমার রাজনৈতিক সহযোদ্ধা থেকে শুরু করে আগাম প্রজন্মের প্রতি এই বার্তা পৌঁছে দেওয়াটা আমার একান্ত নৈতিক দায়িত্ব বলে আমি মনে করি। কাজেই গুরুত্বের সহিত এই দায়িত্ব পালন করতে আমি এতটুকু ও পিছপা হব না। পরিশেষে তিনি সবাইকে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব পরিষদের পক্ষ থেকে ফুলের ও মুজিবীয় শুভেচ্ছা জানান।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536