ব্রাহ্মণবাড়িয়া রোজার মধ্যেও সংর্ঘষ, টেটা যুদ্ধ থেমে নেই

ব্রাহ্মণবাড়িয়া রোজার মধ্যেও সংর্ঘষ, টেটা যুদ্ধ থেমে নেই

ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে হাসান জাবেদ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সংর্ঘষ আর টেটা যুদ্ধ নিয়ে নতুন করে বলার অপেক্ষা থাকে না। সকলেরই জানা আছে এই সংর্ঘষ নিয়ে। আধুনিক যুগে এই সংর্ঘষ সবাইকে অবাক করে তুলে। করোনা পরিস্থিতিতে লকডাউন ভেঙে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। পাওনা টাকা ও ডিস ব্যবসা নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পৃথক সংঘর্ষে ৫০ জন আহত হয়েছে। শনিবার বিকেলে জেলার বিজয়নগর ও সরাইলে পাওনা টাকা ও ডিসের ব্যবসা নিয়ে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়া কয়েকজন আহত ব্যক্তি জানায়, আদমপুর গ্রামের মলাই ভূইয়ার ছেলে আকাশ ভূইয়া ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা পাইত জাহাঙ্গীর সর্দার বাড়ির সমুনের কাছে। আকাশকে পাওনা টাকা দিবে বলে ফোন দিয়ে নিয়ে যায় সুমন। আকাশ, সুমনের কাছে টাকা দাবি করলে দু’জনের মধ্যে তর্কবির্তক হয়ে। এক পর্যায়ে দু’জনের মধ্যে হাতাহাতি হয়। পরে বিকেলে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। ঘন্টাব্যাপী সংঘর্ষে উভয় পক্ষের অর্ধশত আহত হয়। আহতরা হলেন, জাকির হোসেন (৩৭,) বাবলা (১৭), আকাশ ভূইয়া (২৫), ডালিম ভূইয়া (২৬), বাবু (১৭), সোহাগ ভুঁইয়া (২৪), যুবায়ের ভূইয়া (২২), তোফাজ্জল (২৬), সেলিনা (৩০), আরিফ (২৪), কবির (৩০)। এখনো আহত বাকিদের নাম, পরিচয় জানা যায়নি। এদিকে সরাইলের ধরন্তি এলাকায় ডিসের ব্যবসাকে কেন্দ্র করে চাচা ভাতিজার মধ্যে সংঘর্ষে ২০জন আহত হয়েছে। এদের মধ্যে ৩ জনকে গুরুতর আহতাবস্থায় জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। পুলিশ জানায়, সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। পরবর্তী সংঘর্ষ এড়াতে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। এব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536