ফটিকছড়ির সুয়াবিলে নগদ ৮৪ হাজার টাকা ৭ ভরি স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়েছে নববধু-

ফটিকছড়ির সুয়াবিলে নগদ ৮৪ হাজার টাকা ৭ ভরি স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়েছে নববধু-


আলমগীর নিশানঃ-

ফটিকছড়ির সুয়াবিলে হালিমা অাকতার লাইজু (১৮) নামে এক নববধু স্বামীর নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত ২০ মার্চ সন্ধ্যায় উপজেলার নাজিরহাট পৌরসভাধীন পূর্ব সুয়াবিল গ্রামের সৈয়দ বাড়ী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পালিয়ে যাওয়ার পূর্বে নববধু লাইজু তার বড় বোনকে উদ্দেশ্য করে একটি চিরকুট লিখে যান। চিরকুটে তিনি উল্লেখ করেন, ‘স্বেচ্ছায় তিনি স্বামীর ঘর ছেড়ে পালিয়ে যাচ্ছেন। তাকে যেন কোথাও খোঁজা না হয়। চিরকুটে পালিয়ে যাওয়ার জন্য তিনি দুই পরিবারকে দায়ী করেন।’
তার বড় বোন চিরকুটের লেখাটি পলাতক গৃহবধু লাইজু’র বলে নিশ্চিত করেন।

জানা যায়, গত ২৭ ডিসেম্বর সুয়াবিলের হাজিরখীল কোদালিয়া পাড়ার বাসিন্দা অাবুল হাসেমের মেয়ে হালিমা অাকতার লাইজু’র সাথে পারিবারিকভাবে বিবাহ বন্ধনে অাবদ্ধ হন পূর্ব সুয়াবিল গ্রামের মাহমুদুর রহমানের ছেলে নাজিম উদ্দীন।

এ ব্যাপারে স্বামী নাজিম উদ্দিন বলেন, বিয়ের পর থেকেই অামার স্ত্রী অামাকে মেনে নিতে পারছিলোনা। অামাদের মধ্যে দাম্পত্য কলহ লেগেই থাকতো। পরে উভয় পরিবারের বৈঠকে সব ঠিক হয়ে যায়। কিন্তু হঠাৎ করে গত ২৭ ডিসেম্বর অামার স্ত্রী ঘরে রাখা ৮৪ নগদ হাজার টাকা, ৭ ভরি স্বর্ণালংকারসহ কাপড়-চোপড় নিয়ে পালিয়ে যায়। তার পরিবারের লোকজন (কনে পক্ষ) নিখোঁজের পর খবর নিতেও অাসেনি।’

এ ব্যাপারে ভূজপুর থানায় অামি অভিযোগ দায়ের করেছি এবং এ কাজে সহায়তার জন্য সন্ধিগ্ধ একজনের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

জানতে চাইলে লাইজু’র বড়ো ভাই জুয়েল বলেন, ‘এখনো পর্যন্ত বোনের সাথে কোন কথা হয়নি। কোথায় অাছে খোঁজও পাচ্ছিনা।’ তবে তিনি চিরকুটের লেখাটি তার বোনের বলে নিশ্চিত করেন।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536