লামায় অসহায়দের জন্য পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রাণালয় কতৃক ত্রাণ বিতরন-

লামায় অসহায়দের জন্য পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রাণালয় কতৃক ত্রাণ বিতরন-

বিপ্লব দাশ,স্টাফ রিপোর্টার:-
বৈশ্বিক মহামারি প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস (কোভিড -১৯) মোকাবিলায় বান্দরবানের লামায় অসহায়দের পাশে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রালয়ের জরুরী ভিত্তিতে সহায়তা বরাদ্দকৃত ত্রাণ প্রতিনিধির মাধ্যমে পৌঁছৈ দিলেন। (৩ এপ্রিল,২০২০ ইং) শুক্রবার সকালে লামা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে সরকারি নিদের্শনা মেনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এই খাদ্য সামগ্রী গুলো বিতরণ করা হয়। এ কার্যক্রমে অংশ নেন বান্দরবান জেলা আ,লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সদস্য লক্ষী পদ দাশ।

আর উপস্থিত ছিলেন লামা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো মোস্তফা জামাল, পৌর মেয়র মোঃ জহিরুল ইসলাম, জেলা পরিষদ সদস্য ফাতেমা পারুল, ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ জাহেদ উদ্দীন, উপজেলা আ,লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান বাথোয়াইচিং মার্মা, উপজেলা ভাইস – চেয়ারম্যান মো জাহেদ উদ্দিন, মহিলা ভাইস – চেয়ারম্যান মিল্কী রানী দাশ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রদীপ কান্তি দাশ,প্যানেল মেয়র মোঃ হোসেন বাদশা, ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো রফিক, পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মো তাজুল ইসলাম, উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মাইকেল আইচ, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক মো শাহীন প্রমূখ

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত এখন বাংলাদেশেও হয়েছে। ভাইরাসের প্রার্দুভাব রোধে গত ২৬ মার্চ থেকে সারা দেশে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে সকল ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান। সব সড়কে যানবাহন চলাচলও বন্ধ। এর মধ্যে লামা উপজেলাকেও স্থানীয় প্রশাসন কর্তৃক অনির্দিষ্টকালের জন্য নকডাউন (তালাবদ্ধ) করা হয়েছে। শহরের পাশাপাশি গ্রামাঞ্চলও কার্যত ‘লকডাউন’ হয়ে আছে। এ অবস্থায় ঘর থেকে বের না হওয়ার নিদের্শনা দেন।

লক্ষীপদ দাশ জানান, সরকারি বরাদ্দ পাওয়ার পরপরই তারা হতদরিদ্রদের কাছে ত্রাণ পৌঁছে দিতে মাঠে নেমে পড়েছেন। ত্রাণ সামগ্রীর মধ্যে তারা প্রত্যেক পরিবারকে ১০ কেজি চাল,১ কেজি ডাল, এক লিটার তেল এবং সাবান দিচ্ছেন উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে হতদরিদ্র এবং নিম্ন আয়ের লোকদের তালিকা করা হয়েছে। সে তালিকা অনুসারে ত্রাণ সহায়তা তুলে দিচ্ছেন। একই সঙ্গে উপজেলার বিভিন্ন বাজারে জনসচেতনামূলক প্রচারণাও চলমান আছে বলে জানান তিনি।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে রক্ষা পেতে উপজেলার লোকজনকে বাড়িতে থাকতে বলা হচ্ছে। এতে দিনমজুর ও হতদরিদ্ররা সমস্যায় পড়েন। এ কারণে সরকারের মানবিক সহায়তা কর্মসূচির আওতায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাদের ত্রাণ সহায়তা ও দেওয়া হচ্ছে।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536