প্রতারক চক্রের ০২ সদস্য গ্রেফতার

প্রতারক চক্রের ০২ সদস্য গ্রেফতার

সামছুদ্দিন, ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক

নোয়াখালী জেলা গোয়েন্দা শাখা ডিবি পুলিশের বিশেষ অভিযানে ০৫ টি লিখিত স্টাম্প, ০৭ টি চেক, ২৪ টি মোবাইল, স্বর্নের রিং ও নগদ ৩০,০০০/- টাকা সহ প্রতারক চক্র গ্রেফতার ও প্রেস ব্রিফিং
অদ্য পুলিশ সুপার কার্যালয় সম্মেলন কক্ষে প্রতারক চক্রের ০২ সদস্য গ্রেফতার নিয়ে প্রেস ব্রিফিং করেন জনাব মোঃ শহীদুল ইসলাম (পিপিএম) পুলিশ সুপার নোয়াখালী। ঘটনার বর্ণনা :- ১৩/০৫/২০২২খ্রিঃ তারিখ জনৈক ভিকটিম মোঃ আনোয়ার হোসেন জেলা গোয়েন্দা শাখায় উপস্থিত হয়ে অফিসার ইনচার্জ, জেলা গোয়েন্দা শাখা, নোয়াখালীকে মৌখিক ভাবে জানান যে, গত কিছুদিন যাবত মাইজদী বাজার হইতে একজন মহিলা তাহার মোবাইল নাম্বারে ফোন করে উক্ত মহিলাকে চাকুরী দেওয়ার বিষয়ে উপকার করার জন্য অনুরোধ করে এবং তাহার সাথে মাইজদী বাজার এলাকায় দেখা করতে বলে। তৎপ্রেক্ষিতে গত ১২/০৫/২০২২খ্রিঃ বিকাল বেলায় উক্ত ভিকটিম সুধারাম থানাধীন খন্দকার পাড়ায় দেখা করতে আসলে ০২ জন পুরুষ তাহাকে খন্দকার পাড়ার ০১টি বাড়ীতে নিয়ে আটক করে মারধর করে এবং ০১ জন অর্ধউলঙ্গ মহিলার সাথে তাহাকে অর্ধউলঙ্গ করে ছবি উঠায়, ভিডিও করে, ২,৫০,০০০/-টাকা প্রদানের জন্য ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষর রাখে, তার ব্যবহৃত মোবাইল সেট ও ০১টি স্বর্ণের আংটি রেখে দিয়ে তাকে ছেড়ে দেয়। গত ১৩/০৫/২০২২খ্রিঃ তারিখ ভিকটিম প্রতারকদেরকে টাকা লেনদেনের বিষয়টি ডিবি নোয়াখালীকে অবগত করলে পুলিশ সুপার নোয়াখালী জনাব মোঃ শহীদুল ইসলাম (পিপিএম) এর নির্দেশনায়, জনাব সাইফুল ইসলাম, অফিসার ইনচার্জ, জেলা গোয়েন্দা শাখা, নোয়াখালীর তত্বাবধানে ডিবির ০১টি চৌকস টিম পুলিশ পরিদর্শক(নিঃ) জনাব মোঃ সবজেল হোসেন সঙ্গীয় অফিসার ফোর্সসহ প্রতারক ১। টিপু সুলতান চৌধুরী(৪৪), পিতা-মৃত আব্দুল লতিফ চৌধুরী, সাং-গোবিন্দপুর(ইউনুছ পাটোয়ারী বাড়ী), থানা-চাটখিল, এ/পি-নাভানা টাওয়ার(মাইজদী হাউজিং এস্ট্রেট), নোয়াখালী পৌরসভা, থানা-সুধারাম, জেলা-নোয়াখালীকে সুধারাম থানাধীন মাইজদী আমানিয়া হোটেল হইতে রাত ১০.৩০ ঘটিকার সময় লেনদেনের ৩০,০০০/-টাকা, ভিকটিমের নিকট থেকে নেওয়া লিখিত ষ্ট্যাম্পসহ গ্রেফতার করা হয়। উক্ত আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদ করিয়া আসামীর খন্দকার পাড়া নুরুল ইসলাম সাহেবের ভাড়াটিয়া বাসায় তল্লাশী পরিচালনা করে ভিকটিমের মোবাইল সেটসহ ২৪টি মোবাইল সেট, আরো ০৪টি লিখিত ষ্ট্যাম্প, বিভিন্ন ব্যাংকের ০৭টি স্বাক্ষরিত ব্লাংক চেক, ভিকটিমের ব্যবহৃত ০১টি আংটি উদ্ধার করা হয়। পরবর্তীতে আসামীকে নিয়ে অভিযান পরিচালনা করে অত্র প্রতারক চক্রের মহিলা সদস্য ২। তাজনাহার আক্তার রত্না(৩৪), স্বামী-সোহেল রানা, সাং-পশ্চিম রাজারামপুর (সেলিমের বাড়ী), থানা-সুধারাম, জেলা-নোয়াখালীকে তাহার বাড়ী হইতে অদ্য ১৪/০৫/২০২২খ্রিঃ ভোর রাত্রে গ্রেফতার করা হয়। আসামীদ্বয়কে আরো জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, মহিলার স্বামী সোহেল রানা ও উক্ত প্রতারক চক্রের সাথে জড়িত। আসামী টিপু সুলতান চৌধুরীর ব্যবহৃত মোবাইল সেট পর্যালোচনা করে গ্রেফতারকৃত মহিলার সাথে জোরপূর্বক অভিযোগকারীর আপত্তিকর স্থির চিত্র ও ভিডিও চিত্রসহ জোরপূর্বক ষ্ট্যাম্পে লিখিত নেওয়ার ভিডিও পাওয়া যায়। বাদীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে সুধারাম মডেল থানায় আসামীদের বিরুদ্ধে মামলা রুজু প্রক্রিয়াধীন।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536