সেনবাগে নৌকার ভরাডুবি, বিদ্রোহীদের জয়

সেনবাগে নৌকার ভরাডুবি, বিদ্রোহীদের জয়

মোঃসামছু উদ্দিন লিটন, বিশেষ প্রতিনিধি:

নোয়াখালী জেলার সেনবাগ উপজেলায় এক নজিরবিহীন কঠোর নিরাপত্তার মধ্যেদিয়ে উৎসব মুখর পরিবেশে ২৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হলো সেনবাগ পৌরসভা ও উপজেলার ৫টি ইউনিয়ন পরিষদ নিরর্বাচন।

এই প্রথম সেনবাগ পৌরসভা ও ১নং ছাতারপাইয়া ইউনিয়নে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। কোন প্রকার সহিসংতা ছাড়াই রবিবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইতিমধ্যে উপজেলার ৩নং ডমুরুয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ মনোনীত নোয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগ সদস্য শওকত হোসেন কানন বিনা প্রতিদ্বন্ধীতা নির্বাচিত হয়েছেন।

পৌরসভার মেয়র পদে নৌকার প্রার্থী আবু জাফর টিপুকে ৯১৮ ভোটে হারিয়ে জয়ী হয়েছেন আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত বিদ্রোহী প্রার্থী সেনবাগ কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি আবু নাছের দুলাল। তিনি পৌর সভার ৯টি কেন্দ্রের মধ্যে ৮টিতে প্রথম হয়ে মোট ৫৮৫২ ভোট পেয়ে মেয়র পদে বিজয়ী হয়েছেন। অপর দিকে আওয়ামীলীগ দলীয় মনোনীত নৌকা প্রতিকের প্রার্থী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক পর পর দুইবারের নির্বাচিত পৌর মেয়র আবু জাফর টিপু পেয়েছেন ৪৯৩৪ ভোট ।

সেনবাগ পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামীলীগ সর্মথিত তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধীতা করেছেন, আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতিক নিয়ে প্রতিদ্বন্ধীতা করেছেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র আবু জাফর টিপু, নারিকেল গাছ প্রতিক নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্ধীতা করেছেন সেনবাগ কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি আবু নাছের দুলাল এবং মোবাইল প্রতিক নিয়ে মজিবুল হক বাবুল প্রতিদ্বন্ধীতা করে পরে নৌকাকে সমর্থন করে ভোট থেকে বিরত ছিলেন।

ইউনিয়ন পর্যায়ে ১নং ছাতারপাতাইয়া ইউনিয়নে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এখানে আনারস প্রতিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি সমর্থিত বর্তমান চেয়ারম্যান আবদুর রহমান ৬০৬৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী আওয়ামীলীগ বিদ্রোহী প্রার্থী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম পেয়েছেন ৪৩৯৮ভোট, আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী সোরবর হোসেন সুমন পেয়েছেন ২৬০৪ ভোট।

ছাতারপাতাইয়া ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ সমর্থীত দুইজন ও বিএনপি সমর্থিত একজন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশএক জন সহ মোট ৬জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধীতা করেছেন । আওয়ামীলীগের মনোনীত নৌকা প্রতিক নিয়ে প্রতিদ্বন্ধীতা করেছেন সাবেক চেয়ারম্যান মনির আহমেদের সুযোগ্য সন্তান সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সোরবর হোসেন সুমন। চশমা প্রতিক নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্ধীতা করেছেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম । অপর দিকে আনরাস প্রতিক নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্ধীতা করেছেন বিএনপি সমর্থিত চেয়ারম্যান আবদুর রহমান। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর প্রার্থী হাত পাখা নিয়ে মাহমুদুল হাসান পেয়েছেন ৯০৭ভোট,স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল খায়ের পেয়েছেন মোর সাইকেল প্রতিক নিয়ে পেয়েছেন ১৫২ ভোট, ও মোখলেসুর রহমান টেলিফোন প্রতিক নিয়ে পেয়েছেন ১২ ভোট ।

৪নং কাদরা ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে তিন জনই আওয়ামীলীগ সমর্থীত। ভোটে আনারস প্রতিক নিয়ে স্বতন্ত্র হিসেবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত বিদ্রোহী প্রার্থী ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মোঃ গিয়াস উদ্দিন ভুঁইয়া । তিনি পেয়েছেন ৬১৮৪ ভোট।তার নিকতম প্রতিদ্বন্ধি স্বতন্ত্র প্রার্থী জহিরুল আলম, তিনি চশমা প্রতিক নিয়ে পেয়েছেন ৩৮০ ভোট। অপরদিকে আওয়ামীলীগ দলীয় মনোনীত নৌকার প্রার্থী মোহাম্মদ কামরুজ্জামান পলাশ পেয়েছে ২০৪ ভোট।

৬নং কাবিলপুর ইউনিয়নে টেলিফোন প্রতিক নিয়ে বিএনপি সমর্থীত বর্তমান চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বাহার ৮২২১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। অত্র ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে বিএনপি সমর্থিত ২জন এবং আওয়ামীলীগ দলীয় মনোনীত নৌকার প্রার্থী সহ মোট তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধীতা করেছেন। আনরাস প্রতিক নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্ধীতা করেছেন বিএনপি সমর্থিত জয়নুল আবদীন ফারুকের মনোনীত প্রার্থী জহিরুল ইসলাম, তিনি পেয়েছেন ৬৪০৬ ভোট, আওয়ামীলীগের মনোনীত নৌকা প্রতিক নিয়ে প্রতিদ্বন্ধীতা করেছেন আজাদ হোসেন পেয়েছেন ৪২৯৩ ভোট ।

৮নং বীজবাগ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন আনারস প্রতিক নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী সেলিম উদ্দিন কাজল চেয়ারম্যান। তিনি আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্ধিতা করেছেন। তিনি পেয়েছেন ৫৪৫৭ ভোট। ৮নং বীজবাগ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগ সমর্থিত ২জন, জামায়াত সমর্থিত একজন,জাকের পার্টির একজন,স্বতন্ত্র এক ও একজন মহিলা চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধীতা করেছেন। এর মধ্যে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী আনোয়ার হোসেন আলমগীর পেয়েছেন ২৭৮২ ভোট, জামায়াত সমর্থিত হারুনু রশিদ টেলিফোন মার্কা নিয়ে পেেেছন২৬৫২,তার স্ত্রী চশমা প্রতিকে ৭৫ ভোট, এবং জাকের পাটির সাহাব উদ্দিন গোলাপ ফুল মার্কা নিয়ে ২৩৭ভোট এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল কাশেম মোটর সাইকেল প্রতিক নিয়ে পেয়েছেন ২৬৯ ভোট ।

৯নং নবীপুর ইউপির নির্বাচন ৬মাসের জন্য স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে।

সংবাদ শেয়ার করুন

সাইফুল ইসলাম,কক্সবাজার প্রতিনিধি :

কক্সবাজারের মহেশখালীর কালামারছড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে অস্ত্রসহ দুজন সন্ত্রাসীকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব -১৫।

বুধবার (১৯ জানুয়ারি) রাত সাড়ে ২ টার দিকে র‍্যাব -১৫ একটি টিম মহেশখালীর কালামারছড়ায় এঅভিযান পরিচালনা করে।

র‍্যাব -১৫ এর অতিঃ পুলিশ সুপার সিনিঃ সহকারী পরিচালক ( ল ‘ এন্ড মিডিয়া ) অধিনায়ক মোঃ আবু সালাম চৌধুরী জানান, মহেশখালীর কালামারছড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের রাস্তার উপর কয়েকজন সন্ত্রাসী অপরাধমূলক কর্মকান্ড করার জন্য অবস্থান করছে, এমন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযানিক দল অভিযানে গেলে র‍্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে পালানোর চেষ্টাকালে খায়রুল আলম ( ২৫ )ও ছৈয়দুল করিম ( ৩৩ )কে আটক করে।এসময় এই সিন্ডিকেটের ২/৩ জন সদস্য কৌশলে পালিয়ে যায়।

পরে আটককৃতদের কাছ থেকে ৪ রাউন্ড তাজা কার্তুজ,২ টি একনলা বন্দুক ও ২ টি ওয়ানশুটারগান উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরও জানান:আটককৃতরা দীর্ঘদিন ধরে সমাজে অস্হিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি করতে সন্ত্রাস ও অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড চালিয়ে আসছিল।

গ্রেপ্তারকৃত ও পলাতক আসামীদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা রুজু করে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে মহেশখালী থানায় অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

মহেশখালীতে অস্ত্রসহ দুই সন্ত্রাসী গ্রেপ্তার।

themesbazartvsite-01713478536