নন্দিগ্রাম গোলায় রশি ঝুলিয়ে এক যুবকের আন্তহত্যা।

নন্দিগ্রাম গোলায় রশি ঝুলিয়ে এক যুবকের আন্তহত্যা।

শেখ ফরিদ স্টাফ রিপোটার।

১২,১০,২০২১ইং রোজ মঙ্গলবার বগুড়া জেলা নন্দিগ্রাম উপজেলা ৩নং ভাটরা ইউনিয়নে ছোটকুন্চি গ্রামের শ্রী ওরেন চন্দ্র সরকারের ছেলে শ্রী কনক চন্দ সরকার ২০ আনুমানিক সকাল ৮টার সময় গোলায় রশি ঝুলিয়ে আন্তহত্যা করে।
ঘটনা স্থলে গিয়ে জানা যায় তার বাবা বলে আমি সকাল বেলা আমার ছেলেকে টাকা হাতে দিয়ে বলি তুমি পূঁজার বাজার করার জন্য বাজারে যাও। এই বলে আমি জমিতে ঔষধ দেওয়ার জন্য মাঠে যাই। কিছুক্ষন পর আমার কাছে খবর আসে যে আপনার ছেলে গোলায় দড়ি দিয়ে মারা গেছে। তখন আমি পাগলের মত দৌড়ে বাড়িতে আসি। এসে দেখি ঘটনা সত্য।
তার মা প্যারালাইস রোগে অনেক দিন যাবৎ বিছানায় পরে আছে।
এ ব্যাপারে তার ছোট বোন কুমারী রিংকু সরকার ১৬ এর সাথে কথা বল্লে সে বলে আমার ভাই আমার নিকট খাবার চেয়ে বলে আমি বাজারে যাবো। তখন ভাইকে খাবার দিয়ে বাহিরে খোলায় কাজ করছি। কাজ ষেশে বাড়ির ভিতর এসে দেখি ঘড়ের দরজা বন্ধ। ভাই কে ডাক দিলে কোন সারাশব্দ পাই না। তখন আমি চিৎকার করলে আসেপাসের বাড়ির লোক জন চলে আসে। ঘড়ের দরজা বন্ধ দেখে তারা দরজা ভেঙ্গে ঘড়ে ঢুকে দেখে যে আমার ভাই গোলায় রশি ঝুলিয়ে আছে।
এ ঘটনা গ্রামের লোক কুমিড়া পন্ডিত পুকুর পলিশ ফাঁড়িতে খবর দেয়। খবর পেয়ে অফিসার এস,আই মোঃ নূর মোহম্মাদ পুলিশ ফোর্স সঙ্গে নিয়ে ঘটনা স্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে বগুড়া জিয়া মেডিকেল হাসপালে ময়না তদন্তের জন্য প্রেরন করেন।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536