মাদারীপু‌রের শিবচরে পরিত্যাক্ত ঘরে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ

মাদারীপু‌রের শিবচরে পরিত্যাক্ত ঘরে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ

মীর এম ইমরান মাদারীপুর বিশেষ প্রতিবেদকঃ

মাদারীপুরের শিবচরে হাত পা বাঁধা অজ্ঞাত এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার(২০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যার দিকে উপজেলার মাদবরেরচর ইউনিয়নের কালাই হাজীর কান্দি গ্রামের মোশাররফ দফাদারের পরিত্যক্ত ঘরের ভেতর থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। তবে রাত ৯ টা পর্যন্ত উদ্ধার হওয়া মরদেহটির কোনো পরিচয় পাওয়া যায়নি। নিহত বয়স আনুমানিক ৪০ বছর মত।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সোমবার সন্ধ্যায় দুর্গন্ধ পেয়ে গন্ধে খোঁজে স্থানীয়রা। এসময় আশেপাশের লোকজন দূর্গন্ধের উৎস ধরে একটি ঘরের সন্ধান পায় এর মধ্যে মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পরে শিবচর থানা পুলিশ গিয়ে ঘরের ভেতর থেকে হাত-পা বাঁধা ,মুখমন্ডল ঝলসানো মরাদেহটি উদ্ধার করে। লাশের মুখ ও হাত-পা আগুনে ঝলসানো অবস্থায় রয়েছে, লাশের পরিচয় সনাক্ত করা যায়নি বলে জানিয়েছে পুলিশ।
লাশটির পরনে গ্যাবাডিং মেরুন কালার প্যান্ট ও বাসন্তী কালার টি-শার্ট রয়েছে।

সরেজমিনে স্থানীয়রা জানান, মোশাররফ দফাদার দীর্ঘদিন ধরে একটি কওমী মাদ্রাসায় চাকুরী করেন।পরিবার পরিজন নিয়ে ঢাকাতেই থাকেন।কিছুদিন আগে বাড়িতে এসে থাকার জন্য একটি টিনশেড ঘর তৈরি করেন। ঘরটিতে কেউ থাকতো না। ঘরটির বাড়ান্দা খোলা ঘরটিতে অনেকটা পরিত্যক্ত অবস্থায় মরদেহটি পাওয়া যায়।

শিবচর থানার পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) সঞ্জীব জোয়ারদার বলেন, ‘আমরা খবর পেয়ে রাত ৭টার দিকে ঘটনাস্থলে আসি। এখানে একটি ঘরের বারান্দার মেঝে মরদেহটি দেখতে পাই।নিহতের নাম-পরিচয় এখনও জানা যায়নি। পরিচয় শনাক্ত করতে আমরা বিভিন্ন থানায় যোগাযোগ করার চেষ্টা করছি।

এবিষয়ে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (শিবচর সার্কেল) মোঃ আনিসুর রহমান বলেন,”খবর পেয়ে আমরা এখানে আসি।এসে এখানে একটি মৃত্যু ব্যক্তির
পাই,পা ও শরীর রশি দিয়ে বাঁধা ও মুখমণ্ডল পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। সেটা আগুন বা বিষাক্ত কোন পদার্থ দ্বারা।আমরা প্রাথমিকভাবে চেষ্টা করছি এই ব্যক্তি অত্র এলাকার বা বাহিরের কোন এলাকা থেকে নিয়ে আসা হয়েছে কিনা তার পরিচয় উদঘাটনে করার জন্য।আমরা এখন তার মরদেহ মাদারীপুরের সদর হাসপাতালে পাঠানো হ‌বে।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536