রেকর্ড জয়ী হয়ে সিরিজ শেষ করল টিম টাইগার্স।

রেকর্ড জয়ী হয়ে সিরিজ শেষ করল টিম টাইগার্স।

মহসিন মুন্সী, ব্যুরো চীফ।

আজ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টি ২০ সিরিজের সর্বশেষ ম্যাচ খেলতে নামে টিম বাংলাদেশ। যদিও আগেই সিরিজ জয় নিশ্চিত হয়েছে। আজকের জয়ে বাংলাদেশ সিরিজ জয় করে নিল ৪-০ ব্যবধানে।

টসে জিতে বাংলাদেশ ব্যাটিং নেয়। উদ্বোধনী জুটিতে নাঈম – মেহেদী ৪২ রান করলেও তারপরে আর কোন উল্লেখযোগ্য জুটি গড়তে দেখা যায়নি। নিয়মিত বিরতিতে তারা উইকেট হারিয়েছে। বাংলাদেশের উইকেটের পতন ১/ ৪২, ২/৫৭, ৩/৬০, ৪/৮৪, ৫/৯৬, ৬/১১০, ৭/১১৪ এবং ৮/১১৮ রানে। ইনিংস শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ দাঁড়ায় ১২২ রান, ৮ উইকেটের বিনিময়ে। ব্যক্তিগত অর্জনের মধ্যে নাঈম ২৩ বলে ২৩ রান, মাহামুদ উল্লাহ ১৪ বলে ১৯, সৌম্য ১৮ বলে১৬ রান করেন। এছাড়া ১৮ রান করে বড় একটা ভূমিকা রাখেন মি. এক্সট্রা।
অসি বোলারদের মধ্যে ন্যাথান ইলিস ও ড্যান ক্রিস্টিয়ান উভয়েই ৪ ওভার করে বল করে ২ টি করে উইকেট দখল করেন।
এই ১২২ রানের স্বল্প পুঁজি নিয়ে খেলতে নেমে দ্বিতীয় ওভারেই আঘাত হানেন নাসুম আহমেদ। ৩ রানে, দ্বিতীয় ওভারে অস্ট্রেলিয়ার প্রথম উইকেটের পতন হয়। ৯ ওভারে ৪৮ রানে ৪ উইকেট থেকে ১৩.৪ ওভারে ১০ উইকেট হারিয়ে অস্ট্রেলিয়া সংগ্রহ করতে পারে মাত্র ৬২ রান। শুধুমাত্র ক্যাপ্টেন ম্যাথু ওয়েড ২২ রান ও ম্যাক ডারমট ১৭ রান ছাড়া আর কেউ দুই অংকের ঘর ছুঁতে পারেনি।
সাকিব আল হাসান ৩.৪ ওভার বল করে ৯ রান খরচায় ৪ উইকেট তুলে নেন। সাইফুদ্দিন ৩ ওভারে ১২ রানে ৩ ও নাসুম ২ ওভারে ৮ রানে ২ টি উইকেট তুলে নেন। ফলে বাংলাদেশ ৬.২ ওভার হাতে রেখেই ৬০ রানের এক বিশাল জয় অর্জন করে। উল্লেখ্য যে টী২০ ম্যাচে এটিই অস্ট্রেলিয়ার সর্বনিম্ন স্কোর।

আজকের খেলার প্লেয়ার অব দা ম্যাচ পেয়েছেন বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান এবং প্লেয়ার অব দা সিরিজ এর পুরস্কারের জন্য তিনিই নির্বাচিত হয়েছেন। আজকের খেলার পরে টি২০ ম্যাচে সাকিবের উইকেট শিকারের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০২, যা তাকে ২য় সর্বোচ্চে স্থান করে দিয়েছে। তার উপরে এখন শুধুই ল্যাসিথ মালিঙ্গা ১০৭ উইকেট নিয়ে।

স্মর্তব্য যে এর আগে বাংলাদেশ সিরিজ তো দুরের কথা অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টি২০ কোন ম্যাচে জয়ী হতে পারেনি।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536