ভোলায় আওয়ামীলীগ নেতার উপর হামলার ঘটনায় মামলা দায়ের

ভোলায় আওয়ামীলীগ নেতার উপর হামলার ঘটনায় মামলা দায়ের

স্টাফ রিপোর্টার।
ভোলা সদর উপজেলার ধনিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক আসলাম গোলদারের উপর হামলার ঘটনায় ভোলা সদর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে যাহার নং ৪৪/৪০৩ । গত ২৪ জুলাই আওয়ামী লীগ নেতা আসলাম গোলদারের পিতা আবুল বাশার নিজাম বাদী হয়ে এ মামলাটি দায়ের করেছেন । মামলার এজাহারে হামলায় আহত আসলাম গোলদারের পিতা আবুল বাশার নিজাম লিখিত অভিযোগে বলেছেন আমার ছেলে আসলাম গোলদার একজন মাছ ব্যবসায়ী । ভোলা সদর উপজেলার ভোলা সদর মডেল থানা দিন ধনিয়া ১ নং ওয়ার্ড তুলাতুলি ঘাট এ আমার ছেলের একটি মাছের গদি আছে । পাশাপাশি আমার ছেলে একই ঘাটের ইজারাদার। উক্ত গদির বিষয় নিয়ে হামলাকারী টিটু গংদের সাথে আমার ছেলের পূর্ব থেকে বিরোধ চলে আসছিল । গত ২০ জুলাই আনুমানিক সকাল সাড়ে এগারোটার দিকে আমার ছেলে তাহার ব্যবহৃত মোটরসাইকেল যোগে তাহার মাসের গদি থেকে নগদ এক লক্ষ টাকা নিয়ে কোরবানির গরু ক্রয় এর উদ্দেশ্যে যাওয়ার পথে ধনিয়া ৩ নং ওয়ার্ড ডাক্তার মোস্তফা সরদার এর বাড়ির সামনে থাকা পাকা রাস্তার উপর উপস্থিত হওয়া মাত্রই পূর্বপরিকল্পিতভাবে বেআইনি জনতাবধ্য হইয়া মোহাম্মদ টিটু, মোহাম্মদ রোমান পাটোয়ারী ,মোঃ সাইফুল ইসলাম, মোঃ: বাবু,মোঃ: মনির, মোঃ কামাল হোসেন সহ আরো অজ্ঞাত সাত থেকে আটজন লোক সাথে নিয়ে হাতে ধারালো দা, লোহার রড বাশের লাঠিসহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আমার ছেলে আসলাম এর গতিরোধ করে । আমার ছেলে মোটরসাইকেল থামানো মাত্রই সকল হামলাকারীরা তাদের হাতে থাকা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র দিয়ে আমার ছেলেকে এলোপাতাড়ি মারধর শুরু করে । হামলাকারী টিটু তাহার হাতে থাকা লোহার রড দিয়ে আমার ছেলের মাথা লক্ষ্য করিয়া হত্যার উদ্দেশ্যে বারি দিলে আমার ছেলের মাথা সরিয়ে নেওয়ায় শক্ত লোহার রডের আঘাত আমার ছেলের ডান পাঁজরে লাগলে গুরুতর জখম হয় । ওপর হামলাকারী রোমান ও সাইফুল ইসলাম একটি গামছা আমার ছেলের গলায় পেচিয়ে ধরে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা করে । আমার ছেলে মাটিতে লুটিয়ে পড়লে সকল বিবাদীরা তাদের হাতে থাকা লাঠি, লোহার রড, কাঠের রুয়া ও দা এর উল্টা পিঠ দিয়ে আমার ছেলেকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে নীল ফুলা জখম সৃষ্টি করে । হামলাকারী টিটু আমার ছেলের পকেটে থাকা কুরবানির গরু ক্রয় এর জন্য রক্ষিত নগদ এক লক্ষ টাকার জোরপূর্বক কারিয়া নেয়। সকল হামলাকারীরা আমার ছেলের হিরো মোটরসাইকেলে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে ভাঙচুর করিয়া আনুমানিক ৩০ হাজার টাকার ক্ষতিসাধন করে । আমার ছেলের ডাক চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে সকল হামলাকারীরা আমার ছেলেকে ভবিষ্যতে খুন জখম করবে মর্মে প্রকাশ্যে হুমকি দেয়। সংবাদ পাইয়া আমি স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় আমার ছেলেকে উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করি। চিকিৎসক আমার ছেলের শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক বিধায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। আমার ছেলে এখনো চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে ।

ভোলা সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এনায়েত হোসেন জানান, হামলাকারীদের আসামী করে থানায় ভিক্টিমের পক্ষ থেকে মামলা হয়েছে। আসামিদের দ্রুুত গ্রেফতার করা হবে।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536