সাতকানিয়ায় সাবেক সহকারী কমিশনার (ভূমি) পদে নিষ্ঠার সহিত দায়িত্ব পালন-আল-বশিরুল ইসলাম

সাতকানিয়ায় সাবেক সহকারী কমিশনার (ভূমি) পদে নিষ্ঠার সহিত দায়িত্ব পালন-আল-বশিরুল ইসলাম

রিদুয়ানুল হক, স্টাফ রিপোর্টারঃ সাতকানিয়া উপজেলায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) পদে নিষ্ঠার সহিত দায়িত্ব পালন করেছেন আল-বশিরুল ইসলাম তিনি বিগত ২৪ই মার্চ ২০২০ইং তারিখে সাতকানিয়ায়

সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিসেবে যোগদান করেন। যোগদান করার পর থেকে অদ্যাবদি পযর্ন্ত শতভাগ ই-নামজারি চালুসহ সর্বমোট ৪১৮৭ টি নামজারি আবেদনের মধ্যে ৯৪% নিষ্পত্তি এবং ১২০ টি মিস মামলার নিষ্পত্তি করেন। উপজেলার অধিনস্থ সকল ইউনিয়ন ভূমি অফিসকে সিসিটিভির আওতায় অন্তর্ভুক্তকরণ করা, প্রায় ৩ একর সরকারি জায়গা অবৈধ দখল থেকে উদ্ধার ও স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন/ভোক্তা অধিকার রক্ষা/পাহাড় কাটা/অবৈধ মাটি কাটা/ অবৈধ বালু উত্তোলনের বিরুদ্ধে ১৪৫ টি মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে প্রায় ২৯ লক্ষ টাকা জরিমানা আদায় করাসহ ১০০% ভূমি উন্নয়ন কর, ১০০% ইট ভাটার ভূমি উন্নয়ন কর আদায়, ভূমিহীনদের জন্য, নৃ-তাত্ত্বিক জনগোষ্টির জন্য সরকারি খাসজমি বন্দোবস্তী প্রদান এবং গৃহ নির্মাণে প্রত্যক্ষ অংশগ্রহণে সহযোগিতা করেন। তিনি নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া উপজেলার সাতাশী দিগর, জয়গা গ্রামে ১৫ই ফেব্রুয়ারী ১৯৮৯ইং তারিখে জন্ম গ্রহণ করেন। তিনি ৩৪তম বিসিএস ব্যাচের ছাত্র ছিলেন এবং এর আগে দক্ষিণ চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি সিনিয়র স্কেল (পদোন্নতি) পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে সকল বিষয়ে উত্তীর্ণ হয় এবং গণপ্রজাতন্ত্রের একজন সিনিয়র সহকারী সচিব হিসেবে প্রথম পদোন্নতি পাওয়ায় গত ১৫ই জুলাই রোজ বৃহস্পতিবার তিনি সাতকানিয়া সহকারী কমিশনার (ভূমি) হতে পদোন্নতি জনিত বিদায় হন। তিনি সহকারী কমিশনার (ভূমি) থাকাকালীন তিনি পদোন্নতি জনিত বিদায় হওয়ার পর তার নিজ ফেসবুক প্রোফাইল সাতকানিয়া সর্বসাধারণের উদ্দেশ্য একটি পোস্ট করেন যা বরাবরই তুলে ধরা হল সাতকানিয়ার দিনলিপি ১ বছর ৩ মাস ২১ দিন (৪৭৮) দিন কর্মকাল। লকডাউনের শুরু থেকে অদ্যাবধি পর্যন্ত চষে বেড়িয়েছি প্রতিটি জায়গা। শতভাগ ই-নামজারি চালুসহ এ পর্যন্ত ৪১৮৭ টি নামজারি আবেদনের মধ্যে ৯৪% নিষ্পত্তি, ১২০ টি মিস মামলার নিষ্পত্তি। সকল ইউনিয়ন ভূমি অফিসকে সিসিটিভির আওতায় অন্তর্ভুক্তকরণ। প্রায় ৩ একর সরকারি জায়গা অবৈধ দখল থেকে উদ্ধার। স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন/ভোক্তা অধিকার রক্ষা/পাহাড় কাটা/অবৈধ মাটি কাটা/ অবৈধ বালু উত্তোলনের বিরুদ্ধে ১৪৫ টি মোবাইল কোর্ট পরিচালনা। মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে প্রায় ২৯ লক্ষ টাকা জরিমানা আদায় এবং তা সরকারি কোষাগারে জমা প্রদান। ১০০% ভূমি উন্নয়ন কর, ১০০% ইট ভাটার ভূমি উন্নয়ন কর আদায়। ভূমিহীনদের জন্য, নৃ-তাত্ত্বিক জনগোষ্টির জন্য সরকারি খাসজমি বন্দোবস্ত প্রদান এবং গৃহ নির্মাণে প্রত্যক্ষ অংশগ্রহণ। সকল শ্রেণি পেশার মানুষের জন্য অফিস ছিল উন্মুক্ত। সকলের কথা শুনেছি, সাধ্যের মধ্যে যা ছিল তা করে দিয়েছি। যা সাধ্যের বাইরে তার জন্য সুপরামর্শ দিয়েছি সবসময়। অধিকাংশের সহযোগিতা পেয়েছি। নিজের সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি নিজের উপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করার জন্য। দায়িত্ব পালনকালে শ্রদ্ধেয় জেলা প্রশাসক চট্টগ্রাম জনাব ইলিয়াস হোসেন স‍্যার এবং মোঃ মুমিনুর রহমান স‍্যার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব), চট্টগ্রাম দেলোয়ার হোসেন স‍্যার, এস এম জাকারিয়া স‍্যার, নাজমুল হোসাইন স‍্যার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সাতকানিয়া নূর-এ-আলম স‍্যার, আব্দুস সালাম চৌধুরী স‍্যার, মোঃ নজরুল ইসলাম স‍্যার, ফাতেমা-তুজ-জোহরা স‍্যার সহ সকল সরকারি অফিসার, উপজেলা ভূমি অফিস এবং ইউনিয়ন ভূমি অফিসের সকল সহকর্মী, জনপ্রতিনিধি, সাতকানিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ এবং এডিশনাল এসপি, সাতকানিয়া সার্কেল সহ সকলের সহযোগিতা পেয়েছি। সকলের প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞতা। সকলের দোয়া কাম্য।
বিদায় সাতকানিয়া, বিদায় চট্টগ্রাম।
ভাল থাকুক প্রিয় মানুষগুলো।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536