নওগাঁর নিয়ামতপুরে ভারী বর্ষণে কারনে ব্রিজ ভেঙে বিচ্ছিন্ন হওয়ায় চলাচলে ভোগান্তি।

নওগাঁর নিয়ামতপুরে ভারী বর্ষণে কারনে ব্রিজ ভেঙে বিচ্ছিন্ন হওয়ায় চলাচলে ভোগান্তি।

নওগাঁর নিয়ামতপুরে ভারী বর্ষণে কারনে ব্রিজ ভেঙে বিচ্ছিন্ন হওয়ার সাধারণ মানুষ চলাচল চরম ভোগান্তিতে।

মোঃ শাহাদাত হোসাইন(নওগাঁ), নিয়ামতপুর উপজেলা প্রতিনিধি : সোমবার দিবাগত গভীর রাতে শুরু হওয়া বর্ষার ভারী বর্ষণে পানির তোড়ে ভেঙে গেছে উপজেলার ভাবিচা-শালবাড়ী ৬ কিলোমিটার সড়কের মধ্যে নির্মিত ভাবিচা খালের উপর একটি ব্রিজের সংযোগ সড়ক। এতে উপজেলা সদরের সাথে চলাচলে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে দশ গ্রামের মানুষ। এছাড়াও ওই রাতে বজ্রপাতের ঘটনায় নষ্ট হয়ে গেছে অনেকের টিভি।

জানা যায়, রাত আড়াইটা থেকে শুরু হয় ভারী বর্ষণ ও বজ্রপাত। বজ্রপাতের শব্দে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন ঘুমিয়ে থাকা মানুষ। এসময় ভারী বর্ষণের পানিতে প্লাবিত হয় ভাবিচা খালটির দু’পাড়। পানি নিষ্কাশনে সরু ব্রিজটি যথেষ্ট না হওয়ায় পানি উপচিয়ে ব্রীজের সংযোগ সড়কের ওপর দিয়ে প্রবাহিত হতে থাকে পানি। এসময় পানির প্রচণ্ড তোড়ে ভেঙে যায় ব্রীজটির উত্তর পাশের্^র সংযোগ সড়ক। উপজেলা সদরের সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে শালবাড়ী, ঘোলকুড়ি, কাঠালপাড়াসহ আরো কিছু গ্রামের প্রায় ৫ হাজার মানুষ। সংবাদ পেয়ে পরদিন মঙ্গলবার সকালেই ব্রীজটি পরিদর্শনে ছুটে আসেন এলজিইডির কর্মকর্তরা।

নিয়ামতপুর এলজিইডি অফিস সূত্রে জানা যায়, ভাবিচা ফুটবল মাঠ-শালবাড়ী স্কুল পর্যন্ত ৬ কিলোমিটার সড়কটি শেষের অংশ শালবাড়ী হাট পর্যন্ত হেয়ারিং বন করা হয়েছে কয়েক বছর আগে। সড়কের শেষের অংশে জনগুরুত্বপূর্ণ শ্রীমন্তপুর ইউনিয়ন ভূমি অফিস, প্রাথমিক বিদ্যালয় ও শালবাড়ী হাট-বাজার থাকায় এক কিলোমিটার সড়ক পাকা করণের প্রক্রিয়া অব্যাহত রয়েছে।

শালবাড়ি গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য আনিসুর রহমান জানান, তার সময়ে ব্রীজটি নির্মিত হয়। সেই সময়ে তিনি ব্রীজটি আরও সম্প্রসারিত করার জন্য দাবি তুলেছিলেন কর্তৃপক্ষের নিকট। কিন্তু তার যৌক্তিক দাবি উপেক্ষিত করে সরু করে খালের ওপর ব্রিজটি নির্মাণ করা হয়।

বর্তমান ইউপি সদস্য আকতারুল ইসলাম বুলু জানান, প্রতি বর্ষা মৌওসুমে খালটির দুপাড় উপচিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়ে ব্রীজটি ও এর উভয় পাশের্^র সংযোগ সড়ক। ব্রিজটি সংস্কারসহ এর সম্প্রসারণ ঘটিয়ে পাকা সড়ক নির্মাণ এখন সময়ের দাবি বলেন তিনি।

এলজিইডি’র প্রকৌশলী নুর এ আলম সিদ্দীকি বলেন, ব্রিজটির সংযোগ সড়ক ভেঙে পড়ায় জনমানুষ চরম দুর্ভোগে পড়েছেন। তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন মানুষের দুর্ভোগের কথা ভেবে তার দপ্তর থেকে সাময়িক যোগাযোগ স্থাপন করতে ব্রিজটির সংযোগ সড়ক নির্মাণে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগ আপাতত সংস্কার কাজ শুরু করেছে। আগামী কয়েকদিনের মধ্যে যোগাযোগ স্বাভাবিক হবে। পরবর্তীতে ব্রীজটির গুরুত্বের কথা ভেবে সংযোগ সড়কের উভয় পাশর্^ সংস্কারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

০২/০৭/২০২১

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536