মহেশপুরে হাজীর প্রতারনায় এক যুবতী সর্বশান্ত

মহেশপুরে হাজীর প্রতারনায় এক যুবতী সর্বশান্ত


মহেশপুর(ঝিনাইদহ)সংবাদদাতাঃ
ঝিনাইদহের মহেশপুরে এক হাজীর প্রতারনার শিকার হয়ে স্বপ্না খাতুন নামে এক অসহায় যুবতী সর্বশান্ত। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার শ্যামকুড় গ্রামে।


রবিবার সকালে মহেশপুর প্রেসক্লাবে এসে ওই যুবতী কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। কান্নাজড়িত কন্ঠে তিনি জানান, সে শ্যামকুড় গ্রামের মৃত মিজানুর রহমানের মেয়ে। ওই গ্রামের মৃত নজুমদ্দিনের ছেলে হাজী খোরশেদ আলম তাকে দীর্ঘদিন যাবৎ মিথ্যা প্রলোভন দেখিয়ে তার সাথে দৈহিক সম্পর্ক স্থাপন করে আসছিল। গত ২১শে জানুয়ারী ৫লক্ষ টাকা কাবিননামার চুক্তি করে কাজী সাহেবের সাথে যোগ-সাজসে প্রতারনা করে ৫হাজার টাকা কাবিননামা ধার্য করে তাকে বিয়ে করে। বিয়ের পর সে স্বামীর বাড়িতে গেলে তার স্বামী নিজের ঘরে স্থান না দিয়ে ঘরের বারান্দায় থাকতে দেয়। তিনি আরো জানান,হাজী খোরশেদ আলম তাকে প্রতি রাতে অমানুষিক নির্যাতন করতো। সে বাবার বাড়ি না চলে না গেলে তাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। গত একমাস যাবৎ অসহায় নারীকে ফেলে রেখে হাজী খোরশেদ আলম পালিয়েছে। মেয়েটি তার বাড়িতে অর্ধাহারে-অনাহারে থেকে বাঁচার তাগিদে ভাইপোদের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছে। তিনি অত্যন্ত দরিদ্র পরিবারের মেয়ে। উক্ত ঘটনায় বিচার পেতে তিনি সরকারের উপর মহলের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536