বেগমগঞ্জে সড়কের কাজে ধীরগতি, দুর্ভোগ চরমে

বেগমগঞ্জে সড়কের কাজে ধীরগতি, দুর্ভোগ চরমে

মোঃসামছু উদ্দিন লিটন, বিশেষ প্রতিনিধি নোয়াখালী

নোয়াখালী-কুমিল্লা মহাসড়কের চলমান ফোরলেন প্রকল্পের নোয়াখালী অংশে উন্নয়ন কাজ চলছে ধীরগতিতে। সড়কের চৌমুহনী চৌরাস্তা অংশে উন্নয়ন কাজের জন্য খোঁড়া জায়গা নালায় পরিণত হয়েছে। যাতায়াতের পথ না থাকায় ক্রেতা শূন্য থাকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। দুর্ভোগ লাগবে দ্রুত উন্নয়ন কাজ সমাপ্তের দাবি ব্যবসায়ী ও সাধারণ মানুষের।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, বিগত ৩ বছর থেকে কচ্ছপ গতিতে চলছ নোয়াখালী-কুমিল্লা মহাসড়কের ফোরলেন প্রকল্পের কাজ। সড়কটি উন্নয়নের অংশ হিসেবে বিগত ৬ মাস আগে নোয়াখালীর চৌমুহনী চৌরাস্তা অংশ খোঁড়া হয়। কিন্তু ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান দীর্ঘদিনেও উক্ত স্থানে উন্নয়ন কাজটি সমাপ্ত না করায় খননকৃত অংশ বর্তমানে নালায় পরিণত হয়েছে। পানি জমে দূষিত হচ্ছে পরিবেশ। কর্দমাক্ত জায়গায় মশা-মাছির প্রজনন ক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে। তাছাড়া যাতায়াতের পথ না থাকায় ক্রেতা শূন্য থাকে ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান। এতে ব্যবসায়ীরা আর্থিকভাবে মারাত্মক ক্ষতির সম্মুখিন হচ্ছেন। অনেকে মানবেতর জীবনযাপন করছে। বিভিন্ন পরিবহন যাত্রীরাও দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে। তাই জনদুর্ভোগ লাগবে দ্রুত এই সড়কটির উন্নয়ন কাজ সমাপ্তের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

চৌরাস্তার ব্যবসায়ী আবদুর রহমানসহ একাধিক ব্যবসায়ী ও পথচারী জানান, আমাদেরকে যখনি বলেছে আমরা জায়গা ছেড়ে দিয়েছি। কিন্তু আজ ৬-৭ মাস হয়ে গেছে কাজটি শেষ করছে না কর্তৃপক্ষ। যাতায়াতের পথ না থাকায় দোকানে ক্রেতা আসতে পারে না। ক্রয়-বিক্রয় না থাকায় আমরা পথে বসার উপক্রম হয়েছে। দোকান মালিকের ভাড়া দিতে কষ্ট হচ্ছে। নিজেদের ছেলে-মেয়ে পরিবার-পরিজন নিয়ে বিপাকে আছি। আমরা চাই কর্তৃপক্ষ যেন দ্রুত উন্নয়ন কাজটি শেষ করে।

নোয়াখালী সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী বিনয় কুমার পাল জানান, জনসাধারণের দুর্ভোগ দূর করতে দ্রুত উন্নয়ন কাজটি শেষ করা হবে। আমরা ইতিমধ্যে ঠিকাদারের সাথে কথা বলেছি। দুই-এক দিনের মধ্যেই কাজ সম্পন্ন হয়ে যাবে আশা করি।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536