বৈষম্য নয়, আমরা শান্তির চাই কোম্পানীগঞ্জের- মিজানুর রহমান বাদল

বৈষম্য নয়, আমরা শান্তির চাই কোম্পানীগঞ্জের- মিজানুর রহমান বাদল

মোঃসামছু উদ্দিন লিটন, বিশেষ প্রতিনিধি নোয়াখালী :

নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার ১১ দফা শান্তির প্রস্তাবের পর এবার তার বিরোধী উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতারাও চাইলেন ‘শান্তির কোম্পানীগঞ্জ’।
মঙ্গলবার (২৭ এপ্রিল) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে চরকাঁকড়া ইউনিয়নের টেকের বাজারে কারামুক্ত উপজেলা আওয়ামী লীগের চার নেতাকর্মীর সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এ কথা জানানো হয়।
অনুষ্ঠানে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল বলেন, ‘আমরা বৈষম্য চাই না, আমরা শান্তির কোম্পানীগঞ্জ চাই। এ পর্যন্ত আবদুল কাদের মির্জা কোম্পানীগঞ্জে দুজনকে হত্যা করেছে। তার ওই গুণ্ডাদেরকে এখনো পর্যন্ত গ্রেফতার করা হয়নি।’তিনি আরও বলেন, আজকে যে ব্যক্তি এসপিকে বলে একরাম চৌধুরীর পা-চাটা গোলাম, ওবায়দুল কাদেরের চরিত্র হরণ করে, আওয়ামী লীগ এবং সরকারের বিরুদ্ধে বক্তব্য দেন, তার বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয় না। এ ধরনের বৈষম্যের জন্য বাংলাদেশ স্বাধীন হয়নি।’
মিজানুর রহমান বাদল বলেন, ‘অবিলম্বে কোম্পানীগঞ্জের শান্তি বিনষ্টকারী আবদুল কাদের মির্জাকে গ্রেফতার করতে হবে। তার সঙ্গে কিছু মাদকসেবী আমাদের চরিত্রহনন করেই যাচ্ছে। তাদেরকেও গ্রেফতার করতে হবে।’
চরকাঁকড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান আরিফের সঞ্চালনায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন- উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ফখরুল ইসলাম রাহাত, সরকারি মুজিব কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হাসিবুল হোসেন আলাল, সরকারি মুজিব কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি নূরে এ মাওলা রাজু প্রমুখ।
উল্লেখ্য, মঙ্গলবার কাদের মির্জার দায়ের কারা মামলা গ্রেফতার হওয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের চারজন অনুসারী নোয়াখালী জেলা কারাগার থেকে জামিনে মুক্ত হন।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536