সুর্যমুখী চাষে ঝুঁকছেন কৃষকরা

সুর্যমুখী চাষে ঝুঁকছেন কৃষকরা

মোঃসামছু উদ্দিন লিটন, বিশেষ প্রতিনিধি নোয়াখালী

নোয়াখালীর জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলার প্রান্তিক কৃষকরা ঝুঁকছেন সুর্যমুখী চাষে। প্রথমবারই ফলন ভালো হওয়ায় লাভের আশা করছেন চাষীরা। শেষ পর্যন্ত আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে বেগমগঞ্জে এবার সূর্যমুখী চাষে বিপ্লব ঘটবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।
উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, চলতি অর্থ বছরে রাজস্ব বাজেটের আওতায় প্রথমবারের মতো বেগমগঞ্জ উপজেলা কৃষি বিভাগ সূর্যমুখী চাষের উদ্যেগ নেয়। এ জন্য মাঠ দিবসসহ নানা কর্মসূচির মাধ্যমে ৫০ জন প্রান্তিক কৃষককে সূর্যমুখী আবাদে উদ্বুদ্ধ করা হয়। পরীক্ষামূলক চাষ করা হয় দশ হেক্টর জমিতে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় রোপিত সূর্যমুখী অল্প দিনেই কৃষকের মুখে হাসি ফোটায়।
সূর্যমুখী ফুলের হাসি দেখতে দূরদূরান্ত থেকে অনেককে ভীড় জমায়। কিছু কিছু এলাকায় সূর্যমুখী গাছে ইতিমধ্যে ফুল ঝরে গোটা আসতে শুরু করেছে। কৃষক ব্যস্ত গাছের শেষ মুহুর্তের পরিচর্যায়। প্রথমবারই বাম্পার ফলনের আশা করছেন কৃষকরা। ভালো দাম পেলে আগামীতেও সূর্যমুখী চাষ করবেন বলে জানান কৃষকরা।
বেগমগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ রেজাউল করিম ভূঁঞা জানান, সয়াবিন উৎপাদনের বিশেষ প্রয়োজনে সূর্যমুখীর সঠিক বাজার দর পেলে এবং কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করা গেলে বেগমগঞ্জে সূর্যমখী চাষের বিপ্লব ঘটবে।
বেগমগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান শাহনাজ বেগম ও ভাইস চেয়ারম্যান নুর হোসেন মাসুদ বলেন, সূর্যমুখী চাষে এমন সফলতার জন্য আমরা কৃষি বিভাগকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। এখানে কৃষি বিপ্লব হয়েছে, কৃষকরা সূর্যমুখীর পাশাপাশি অন্যান্য ফসল চাষ করেও লাভবান হতে পারবে। আমরা যে কোন প্রয়োজনে কৃষকদের পাশে থাকার চেষ্টা করবো। তাদের কোন সহযোগীতা লাগলেও উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে যথা সম্ভব সহযোগীতা করা হবে।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536