ফেঞ্চুগঞ্জের বিয়ালীবাজারে ভাড়াটিয়া মহিলা সহ শিশু সন্তানকে মারধর করে বাসা তালা দিলেন মালিকপক্ষ

ফেঞ্চুগঞ্জের বিয়ালীবাজারে ভাড়াটিয়া মহিলা সহ শিশু সন্তানকে মারধর করে বাসা তালা দিলেন মালিকপক্ষ

ফেঞ্চুগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলায় বাসার ভাড়াটিয়া মহিলা ও ৫ বছরের শিশু সন্তান- কে মারধর করে বাসা তালা দেবার অভিযোগ উঠেছে বাসার মালিকপক্ষ্যের উপর।

ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বিয়ালীবাজার সংলগ্ন কাইস্তগ্রাম বাবুল মিয়ার ভাড়াটিয়া বাসায়।

থানায় অভিযোগ পত্রের সুত্রে জানা যায় বাবুল মিয়ার বাসায় দীর্ঘদিন যাবত ভাড়াটিয়া হিসেবে থাকতেন ভিকটিম সহ তার স্বামী সন্তান এবং ননদ কিন্তু বর্তমানে মার্চ মাসের শেষ সপ্তাহে বাসা ছেড়ে দেবার জন্য চাপ প্রয়োগ করেন মালিক পক্ষ বাবুল মিয়া সহ রাবেল মিয়া এতে ভিকটিমের স্বামী তাদের কথাতে বলেন আমাকে আপনারা কিছু সময় দেন আমি অন্যত্র বাসা পেয়ে গেলে আপনাদের বাসা ছেড়ে দেবো বলে তিনি তাদেরকে বলেন।

কিন্তু এর সপ্তাহ খানেক যেতেই আজ ১ এপ্রিল বৃহস্পতিবার দুপুরে ভিকটিমের স্বামী এবং ননদ বাসাতে না থাকার সুবাদে
বাবুল মিয়ার পুত্র রাবেল মিয়া ভিকটিমের বাসাতে এসে জোরপূর্বক বাসা থেকে বের করতে চাইলে ভিকটিম ঘর থেকে বের হতে না চাইলে রাবেল মিয়া ভিকটিম-কে কিল-ঘুষি এবং লাতি মারে এতে ভিকটিমের চিৎকারে ৫ বছরের পুত্র সন্তান এগিয়ে আসলে তাকেও লাতি মারেন অভিযুক্ত রাবেল মিয়া।

এতে ভিকটিম গুরুতর আহত হলে ভিকটিমের স্বামী এসে থাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেন এবং ভিকটিম বাদী হয়ে ফেঞ্চুগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ করেন, অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ফেঞ্চুগঞ্জ থানার এস আই বেলাল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং তালা দেয়া বাসা খুলে দিয়ে ভিকটিমকে অন্যত্র চলে যাবার জন্য এক মাস অথবা দেড় মাসের সময় বেধে দেন তার পাশাপাশি অভিযুক্ত রাবেল মিয়া ভিকটিমকে মারধরের বিষয়ে আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তিনি জানান এস আই বেলাল।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536