চরম্বা ইউনিয়নের মাইজবিলায় চলছে নির্বিচারে মাটি কাটার মহোৎসব

চরম্বা ইউনিয়নের মাইজবিলায় চলছে নির্বিচারে মাটি কাটার মহোৎসব

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার চরম্বা ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের মাইজবিলা পশ্চিম পাড়া গ্রামে সরকারি আইনকে তোয়াক্কা না করে অবৈধ লাইসেন্সবিহীন ডেম্পার গাড়ি দিয়ে কৃষি জমি থেকে ২০/৩০ ফুট গভীর করে মাটি বিক্রি করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বিভিন্ন জায়গায়।

০২ মার্চ”২০২১ইং মঙ্গলবার দুপুরে মাটি কাটার এই দৃশ্য দেখা যায়।

এদিকে ফসলী জমি সোনা ফলানো মাঠ ধ্বংস করে মাটি বিক্রির মহোৎসব চলছে। এ সময়ের মাঠের পর মাঠ সোনালী আমন, কৃষকের মুখে নবান্নের হাসি, ধান মাড়াইয়ে কৃষাণিদের ব্যস্ততা, উঠান জুড়ে ধান শুকানো ও গোলা ভরা ধানের দৃশ্য গ্রামীণ জীবনে এখন শুধুই স্মৃতি। সোনা ফলানো সেই মাঠে ধান কাটার কাচির বদলে চলছে কোদাল আর স্কেবেটর।

কৃষি ভূমি রূপান্তরিত হয়েছে পতিত ভূমিতে। কোথায়ও আবার গভীর গর্ত হয়ে যাওয়ায় সে সব জলশয়ে জাল দিয়ে মাছ ধরা হয়। ফসলী জমি থেকে মাটি কেটে নেওয়ায় নিচু জমি গুলো পরিণত হয়েছে ছোট পুকুরে।

সরেজমিনে গেলে স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, লোহাগাড়া উপজেলার চরম্বা ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের মাইজবিলার পশ্চিম পাড়া গ্রামের সাধারন কৃষকদের’কে বিভিন্ন ধরনের কথা বলে তাদেরকে সামান্য অর্থের লোভ দেখিয়ে এসব ব্যবসায়ীরা ব্যবসা করতেছে বলে জানান তারা। মাঠে ফসলি জমির টপসয়েল কেটে বিক্রির নগদ অর্থের লোভে এসব জমি থেকে মাটি বিক্রি করে সর্বশ্রান্ত হচ্ছেন প্রান্তিক কৃষকরা।ফসলীভূমি যখন জলাশয়ে পরিণত হয়- তখন ফসল-মাছ দু’টি থেকে বঞ্চিত হয়ে কৃষক জমি বিক্রি করে এক পর্যায়ে ভূমীহীনে পরিণত হয়।

এ ব্যাপারে স্থানীয় জন-প্রতিনিধি ও প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকার সচেতন মহল।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536