লোহাগাড়ায় কৃষি জমি থেকে ধান ক্ষেত কেটে নষ্ট করে ফেলার অভিযোগ।

লোহাগাড়ায় কৃষি জমি থেকে ধান ক্ষেত কেটে নষ্ট করে ফেলার অভিযোগ।

বিশেষ প্রতিনিধিঃ

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার কলাউজান ইউনিয়নে ফজলে এলাহি চৌধুরী নামে এক ব্যক্তির ৫’শতক জমি থেকে ধান ক্ষেত কেটে নষ্ট করে ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গত ২৩ ফেব্রুয়ারি”২০২১ইং মঙ্গলবার আনুমানিক দুপুর ১২টার দিকে মাঠের এসব ধান কেটে নষ্ট করার ঘটনা ঘটে।এতে প্রায় ৩০ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে বলেও দাবি তাদের। এ ঘটনায় ফজলে এরাহি চৌধুরী (৩৯) বাদী হয়ে মোঃ রেজাউল হক (৪০) ইয়াছমিন আক্তার (৩০) নামে দু’জনের বিরুদ্ধে লোহাগাড়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক ফজলে এলাহি চৌধুরী হলেন- কলাউজান ইউনিয়নের ০৮নং ওয়ার্ডের আজগর আলী সিকদার পাড়া গ্রামের স্থায়ী বাসিন্দা মৌলানা মাহমুদুল চৌধুরীর পুত্র।

জানা যায়, ভুক্তভোগী ফজলে এলাহি চৌধুরীর দীর্ঘদিন ধরে তাদের ভোগ দখলীয় মৌরসী জায়গার উপর কৃষি কাজ করে আসছিলো। হঠাৎ করে আমাদের ৫০ বছরের দখলীয় জমি-জমা উপর প্রতিবেশী রেজাউল হক চৌধুরী ও ইয়াছমিন আক্তার পূর্ব জের ধরে ঝগড়া বিবাদ সৃষ্টি করে।প্রতিবারের ন্যায়ায় ঠিকই এই মৌসুমে ভুক্তভোগী ফজলে এলাহি চৌধুরী তার চাষা আব্দুর সবুরকে দিয়ে ৫’শতক জমিতে ইরি-বোরো ধান রোপণ করে ছিলো। ধানের চারা গুলো বেশ বড় হয়ে উঠেছিলো। এবার জমি থেকে ভালো ফলনের আশা করছিলেন। কিন্তু আশা আর পূরণ হল না। গত ২৩ ফেব্রুয়ারি”২০২১ইং মঙ্গলবার দুপুরে অভিযুক্ত রেজাউল হক চৌধুরী ও ইয়াছমিন আক্তার সহ কিছু বহিরাগত লোকজন নিয়ে ভুক্তভোগীর জমিতে গিয়ে ধানক্ষেত গুলো কেটে নষ্ট করে ফেলা হয়।

এদিকে চাষি আব্দুর সবুর বলেন, ধানক্ষেত কেটে নষ্ট করার সময় আমি বাঁধা দিলে অভিযুক্ত রেজাউল হক চৌধুরী ও ইয়াছমিন আক্তার আমাকে মারধর করার চেষ্টা করে এবং ভিবিন্ন ধরনের গালিগালাজ করেন এবং বাড়ি-ঘরে আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেবে। এমন কি আমাকে ও আমার জমির মালিক’কে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করে প্রাণে হত্যা করিবে বলে হুমকি দেন।
বর্তমানে আমি ও আমার মালিক জান মালের নিরাপত্তাহীনতায় ভোগতেছি। তাই দ্রুত প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

ক্ষতিগ্রস্ত ফজলে এলাহি চৌধুরী’র অভিযোগ—পূর্ব শত্রুতার জের ধরেই প্রতিপক্ষ রেজাউল হক ও তার স্ত্রী ইয়াছমিন আক্তার লোকজন নিয়ে আমাদের ৫০ বছরের ভোগ দখলীয় মৌরসী জমি থেকে হঠাৎ করে আমাদের রোপিত ধানের চারা কেটে নষ্ট করেছে। এতে প্রায় ৩০ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে। তাই প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করে তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি জানিয়েছেন তিনি।

স্থানীয়’রা বলেন, ফসলের সঙ্গে শত্রুতার ঘটনাটি অমানবিক। তাই এমন ঘটনার সঙ্গে যারাই জড়িত থাকুক না কেন, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া দরকার। সংশ্লিষ্ট প্রশাসন ও পুলিশের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তারা।

এ বিষয়ে লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি জাকের হোসাইন মাহমুদ জানান, ফজলে এলাহি চৌধুরী নামে এক ব্যক্তির অভিযোগ পেয়েছি। এই ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

এদিকে অভিযুক্ত ব্যক্তির মোবাইল ফোনে পাওয়া না যাওয়ায় তাদের বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536