নওগাঁ মন্ডল পাড়ায় খড়ের পালায় আগুন।

নওগাঁ মন্ডল পাড়ায় খড়ের পালায় আগুন।

অন্তর আহম্মেদ নওগাঁ জেলা প্রতিনিধিঃ নওগাঁ সদর উপজেলার মন্ডল পাড়া গ্রামে খড়ের পালায় আগুন এর ঘটনা ঘটেছে।স্থানীয়রা জানায়, রাত ৯.টায় মন্ডল পাড়া গ্রামের কৃষক সাইফুল মন্ডলের ৩বিঘা জমির একটি খরের পালা ও একটি ঘড়ে আগুনের শিখা দেখে স্থানীয় লোকজন ছুটে এসে আগুন নেভানোর চেষ্টা করে। স্থানিয় ফায়ার স্টেশনে খবর দিলে ফায়ার সার্ভিস এক ঘন্টার চেষ্টায় রাত ১০টায় আগুন নেভায়।

কৃষক সাইফুল মন্ডল বলেন, রাত ৯.ঘটিকার দিকে হঠাৎ আগুন ও ধুয়া দেখতে পাই এবং স্থানীয় লোকজনকে সাথে নিয়ে আগুন নিভানোর চেষ্টা করা হয়।সেই সঙ্গে স্থানীয় ফায়ার সার্ভিসে খবর দিলে ১০-১৫ মিনিটের মধ্যে এসে আগুন নিভাতে সক্ষম হয়।স্থানিয় সারোয়ার তামজীদ সোমরাট জানান, এই খড়ের আগুন নিভানো সক্ষম হলেও গরুর খাদ্য হিসাবে অনুপযোগী হয়েছে।

নওগাঁ ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার শফিউল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় আধাঘন্টার চেষ্টায় আগুন নেভাতে সক্ষম হয়েছি।ধারনা করা হচ্ছে পালার পার্শ্বে ফাউশ থেকে ফেলে দেওয়া রান্না করার ছাইয়ের আগুন থেকে খড়ের পালায় আগুন লেগেছে।

অন্তর আহম্মেদ
নওগাঁ ০১৭৪২১৬২৩৫৫

সংবাদ শেয়ার করুন

স্টাফ রিপোর্টার:

২৬ ডিসেম্বর দৈনিক সকালের সময়ে প্রকাশিত নিউজের বিরুদ্ধে আপত্তি জানিয়েছেন সাতকানিয়া পশ্চিম গাটিয়াডেঙ্গা ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার সহ-সুপার হারুনুর রশিদ। তিনি বলেন প্রতি বৎসর হেফজখানা ও মাদ্রাসা মিলে বাৎসরিক বার্ষিক সভার আয়োজন করে থাকেন এবং তারই ধারাবাহিকতায় ২০২০ইং সালে ২৮শে ফেব্রুয়ারী রোজ শুক্রবার বার্ষিক সভার আয়োজন করা হয়।

উক্ত বার্ষিক সভায় আদায়কৃত টাকা যাবতীয় খরচাদি বাদ দিলে শিক্ষক/কর্মচারীদের এক মাসের উৎসাহ ভাতা প্রদান করার পর অবশিষ্ট টাকা গুলো কোথায় রাখা হবে তা নিয়ে জটিলতা দেখা দিলে অত্র মাদ্রাসার শিক্ষক/কর্মচারী ও কমিটির অভিভাবক সদস্য ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে একটি নিয়মিত শিক্ষক অধিবেশনের আহবান করা হয়। উক্ত বৈঠকে সর্বসম্মতিক্রমে এই সিন্ধান্ত গৃহীত হয় যে, কারো হাতে বা কারো ব্যাংক একাউন্টে টাকাগুলো রাখা যাবে না। অন্যদিকে গত ১৯/০৮/২০১৯ইং সালে মাদ্রাসার পরিচালনা কমিটির মেয়াদ উর্ত্তীন হওয়ায় মাদ্রাসার সাধারণ তহবিলেও টাকা গুলো রাখা যাবে না। কারণ মাদ্রাসার ২০২০ সালের দাখিল পরিক্ষার্থীদেও বিদায় অনুষ্ঠানে সাবেক সভাপতি হাজী দেলোয়ার হোসেন বক্তব্যকালে বলেন তৎকালিন সুপার আবুল কাসেমের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ থাকায় ০১/০২/২০২০ইং তারিখ মাদ্রাসার সুপার আর মাদ্রাসায় আসবে না বলে সাফ ঘোষনা দেন। তৎ কারনে পূবালী ব্যাংক, সাতকানিয়া শাখার ১০০২০০ নং ৩ জনের যৌথ একাউন্টে সেই টাকাগুলো রাখা হয়।

কাজেই প্রকাশিত নিউজের বর্ণিত অর্থ অত্মসাৎে বিষয়টি সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন, বনোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রনোদিত বটে। সাতকানিয়া পশ্চিম গাটিয়াডেঙ্গা ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার সহ-সুপার হারুনুর রশিদের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে কিনা জানতে চাইতে তিনি বিষয়টি স্বীকার করে বলেন একই বিষয় নিয়ে একটি অভান্তর ও ভিত্তিহীন মাদ্রাসার পরিচালনা কমিটির সাবেক সভাপতি হাজী দোলোয়ার হোসেন বাদী হয়ে সাতকানিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরারব একটি অভিযোগ দায়ের করেন। যাহা বর্তমানে সাতকানিয়া উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আজিম শরীফ মহোদয়ের কাছে তদন্তাধীন রয়েছে।

এই বিষয়ে পশ্চিম গাটিয়াডেঙ্গা ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি হাজী দেলোয়ার হোসেনের কাছ থকে জানতে বেশ কয়েক বার মুঠোফোনে পাওয়া যায় নাই। অন্যদিকে সাতকানিয়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আজিম শরীফের কাছ থেকে তদন্তের বিষয়ে জানতে চাইলে বেশ কয়েক বার কল করেও তাকে মুঠোফোনে পাওয়া যায় নাই।

প্রকাশিত নিউজের প্রতিবাদ জানিয়েছেন সহ-সুপার হারুনুর রশিদ

themesbazartvsite-01713478536