এক ভূমিহীন এর নিজের ঘরের জমি দান

এক ভূমিহীন এর নিজের ঘরের জমি দান

মহসিন মুন্সী, বিশেষ প্রতিনিধি, ফরিদপুর। ২০ ডিসেম্বর ২০২০।

ছবির অত‍্যন্ত সহজ স্বাভাবিক এই নারী নিজেই মানবিক সাহায্য পাবার যোগ্য। তারপরও নিজেই হলেন মানবতার ফেরিওয়ালা। এই নারী ভুমিহীন। তিনি নিজে বসবাস করেন ফরিদপুর সদর থানার ভাটিলক্ষ্মীপুর স্লুইসগেট এলাকার পরিত্যক্ত বিকল্প সড়কে। তথা সরকারের পরিত্যক্ত জমিতে। এখানে তার পরিবার পরিজন নিয়ে বসবাস করেন তিনটি ছাপড়া ঘরে।
তারপরও তার ঐ তিনটি ঘর থেকে একটা ছেড়ে দিলেন ফরিদপুর ‘মানবিক স্কুল’ কে। মানবিক স্কুল করার জন্য।
মানবিক স্কুলে পড়ছেন তারাই যাদের বই খাতা ব্যাগ বা ভাল পোশাক কিনে বিদ্যালয় যাবার আর্থিক স্বচ্ছলতা নাই।
যাদের সাথে প্রকৃতিও অমানবিক রুঢ় আচরন করে, প্রকৃতি আলাদা সমাজ গড়ে তুলেছে। এর বেশ কয়েকটি নামও আছে। যেমন, বস্তি, গুচ্ছ গ্রাম, পরিত্যক্ত জমিতে আবাস, ফুটপাথের মানুষ, পথের পাশের মানুষ, রাস্তার আইল্যান্ডে বসবাস করা সমাজ।
এরাই সমাজের বড় ও ভাল মানুষ বা পয়সাওয়ালা সাহেবদের কাছে ছিন্নমূল মানুষ বা বস্তির বাসিন্দা।
এই অসহায় অভাবী এবং খেটে খাওয়া মানুষ গুলোর সন্তানরা পর্যায়ক্রমে হয়ে উঠে শিক্ষা বঞ্চিত শিশু।এই শিশুরা তাদের অভাবের সংসারে লেখাপড়ায় আগাতে না পেরে হয়ে পড়ে অশিক্ষিত, নিরক্ষর।
কারনগুলো প্রায় একই রকম। যেমন পয়সার অভাব, বই খাতা কেনার অর্থ নাই, ভাল পোশাক পড়ার সূযোগ নাই। এসবের পেছনে শুধুই অর্থের অভাব।

এই সকল অভাবি ও নিরক্ষর দরিদ্র জনগোষ্ঠীর বাচ্চাদের নিরক্ষর থেকে তুলে এনে অক্ষর জ্ঞানদান করে স্বাবলম্বী করার প্রচেষ্টা গ্রহন করছেন ‘মানবিক ফরিদপুর’ নামে একটি সংগঠন।

এই সংগঠন টি সম্পুর্ন নিজেদের অর্থে পরিচালিত হচ্ছে। এই স্কুলে পড়তে কোন বাচ্চা বা শিশুর বই খাতা, স্কুল ব্যাগ কিনতে পয়সা লাগে না। এমন কি বেতনের টাকাও না।

এই ‘মানবিক ফরিদপুর’ সংগঠনটি কিছু মানবহিতৈষী মনের সম্মেলনে তৈরী হয়েছে। যার একজন মানবিক নারী উদ্যোক্তা জয়িতা, নিলুফার ইয়াসমিন রুবি।

‘মানবিক ফরিদপুর’ সংগঠনের একটি অন্যতম অঙ্গ শিক্ষা প্রতিষ্টান অঙ্গন ‘মানবিক স্কুল’। এখানে যে কোন দুস্থ অসহায় ও বস্তি বা ছিন্নমূল বাস্তুহারা শিশুর লেখা পড়া করার জন্য ভর্তি হতে পারবে।

সুবিধাবঞ্চিত বাচ্চাদের উদ্দেশ‍্যে যে স্কুলটি গড়ে উঠেছে তার নাম “মানবিক স্কুল”। সুবিধা বঞ্চিত এসকল বাচ্চাদেরকে এখানে ডিজিটাল পদ্ধতিতে লেখাপড়া শেখানো হবে, গড়ে তোলা হবে আলোকিত মানুষ হিসেবে। সেই লক্ষ্যকে সামনে রেখে মানবিক ফরিদপুর টিম সর্বদা কাজ করে চলেছে। যে কও যুক্ত হতে পারেন এই মানবিক ফরিদপুর সংগঠনটির সাথে।
অথবা যুক্ত হতে পারবেন মানবিক শুধুমাত্র স্কুলের সাথে।
“দুর্যোগে দুর্দিনে আমরা”
স্লোগানকে সামনে রেখে ‘মানবিক ফরিদপুর’ এগিয়ে চলেছে। নিজস্ব এবং দাতাদের অর্থায়নে তারা বিভিন্ন মানবিক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। যার মধ‍্যে রয়েছে অসহায় শিশুদের জন‍্য বিনামুল্যে বিদ‍্যালয়, অসহায় মেয়েদের বিবাহের ব‍্যবস্থা, শীতার্তদের শীতবস্ত্র বিতরন, বন‍্যার সময় ত্রাণ বিতরন, করোনাকালীন চিকিৎসকদের/ স্বাস্থ‍্যকর্মিদের বিশেষ সেবা, করোনাকালে অসহায়দের জন‍্য খাদ‍্য বিতরন এরকম আরো বেশকিছু। যে কোন মানবিক মানবের যে কোন পরিমানের অনুদান তারা গ্রহন করেন এবং দাতার ইচ্ছানুযায়ী ব‍্যবহার এর চেষ্টা করেন।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536