নওগাঁ জেলা শাখার সম্মিলিত সাংবাদিক ফোরাম থেকে ৬ জন সদস্য পদত্যাগ

নওগাঁ জেলা শাখার সম্মিলিত সাংবাদিক ফোরাম থেকে ৬ জন সদস্য পদত্যাগ


অন্তর আহম্মেদ, নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি : নওগাঁ জেলা শাখার সম্মিলিত সাংবাদিক ফোরাম থেকে সেচ্ছায় ৬ জন সদস্য পদত্যাগ করেন। জানা গেছে, সম্মিলিত সাংবাদিক ফোরাম নওগাঁ জেলা শাখা কমিটির কোন বৈধ কাগজ না থাকায় তারা স্ব-ইচ্ছায় এ পদত্যাগ করেছেন। পদত্যাগ করা সদস্যরা হলেন, সাংবাদিক আমজাদ হোসেন, রশিদুল আলম রশিদ, খোরশেদ আলম রাজু, রুবেল হোসেন, ফারমান আলী, অন্তর আহম্মেদ।
কমিটির নওগাঁ জেলা শাখার কার্য্য নির্বাহী কমিটির গঠন করা হয় ম্যাসেঞ্জার বা গ্রুপের মাধ্যমে সেটাও ঢাকা থেকে, সেখানে ইচ্ছে মতো সদস্য নিয়ে থাকে আবার তাদের ইচ্ছে মতো বাদ দেওয়া হয়। গত বিজয় দিবসের প্রোগ্রামের পরে সম্মিলিত সাংবাদিক ফোরাম নওগাঁ জেলা শাখার এই পকেট কমিটির ম্যাসেঞ্জার বা গ্রুপের ঘোষণাকৃত সাধারন সম্পাদক মো. আমজাদ হোসেনও সেচ্ছায় পদত্যাগ করেন এবং ওই কমিটির অন্তর আহম্মেদ নামের একজন সদস্যকে বাদ দেওয়া হয়েছে। সেখানে নওগাঁ জেলা শাখার সঠিক কোন বৈধ কমিটির কাগজ না থাকায় এবং সঠিক ভাবে কমিটি পরিচাল না করায় সদস্যরা একের পর এক পদত্যাগ করেছেন বলে জানা গেছে।
ম্যাসেঞ্জার বা গ্রুপের ঘোষণাকৃত পকেট কমিটির সদস্য ফারমান আলী জানান, কমিটির নাম ভাঙ্গীয়ে একক সুবিধা নেওয়ার জন্য এই কমিটি গঠন করেছে। তবে কমিটির সভাপতি এবিএম হাবিবুর রহমান হাবিব বিভিন্ন যায়গাতে একক সুবিধা নিয়েছে বলে জানান। এবং এই কমিটির সঠিক কোন কাগজপত্র নেই তাই প্রশাসনকে বিষয়টি গুরুত্বসহ দেখার জন্য দাবি করছি।
সদস্য অন্তর আহম্মেদ বলেন, কমিটির বৈধ কাগজ পত্র দেখতে চাইলে, বৈধ কাগজ পত্র কি দরকার, কাগজপত্র লাগবে না বলে জানান। এবং কমিটি যে ভাবে আছে সেই ভাবে চলতে পারলে চলেন। বলেন কমিটির নওগাঁ জেলার সভাপতি হাবিবুর রহমান হাবিব। কেন্দ্রীয় কমিটি এখনও হয় নাই, কেন্দ্রীয় কমিটি ৩মাস পর গঠিত হবে তখন কাগজ আসবে, এখন কাগজ লাগবে কি জন্য। কাগজ ছাড়াই কমিটি চলবে এর বিরোধীতা করলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না । বলে কিছু না বলে কমিটি গ্রুপ থেকে বাদ (রিমুভ) দেন আমাকে।
খোরশেদ আলম রাজু বলেন, কমিটির সঠিক কোন কাগজপত্র নেই তাই প্রশাসনকে বিষয়টি গুরুত্বসহ দেখার জন্য দাবি করছি। ম্যাসেঞ্জার বা গ্রুপের ঘোষণাকৃত পকেট কমিটির সম্মিলিত সাংবাদিক ফোরাম থেকে পদত্যাগ করলাম।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536