ভোজ‍্য তেলের মূল‍্য আবার অনিয়ন্ত্রিত:

ভোজ‍্য তেলের মূল‍্য আবার অনিয়ন্ত্রিত:

মহসিন মুন্সী, বিশেষ প্রতিনিধি। ৫ ডিসেম্বর ২০২০।

এক সপ্তাহের ব্যবধানে বাজারে বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম লিটার প্রতি বেড়েছে ৫ টাকা। আগামী দু’এক দিনের মধ্যে এ দাম আরও বাড়ার আভাস দিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। কারণ হিসেবে আন্তর্জাতিক বাজারকে দায়ী করছেন তারা। ফলে চাল, পেঁয়াজ ও আলুর পর ভোজ্য তেলের বাজারের এই অস্থিরতা মধ্য ও নিম্ন মধ্যবিত্তকে ভাবিয়ে তুলেছে।

শনিবার (৫ ডিসেম্বর) খুলনা নগরীর বড়বাজার ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, সয়াবিন পাইকারী দরে তীর (৫ লিটার) ৫২৫ টাকা, ফ্রেস (৫ লিটার) ৫২৫ টাকা, রুপচাঁদা (৫ লিটার) ৫৫০ টাকা, খোলা তেল প্রতি কেজি ১০০ টাকা, এবং পাম তেল কেজি প্রতি ৮৫ টাকা বিক্রি হচ্ছে। আর খুচরা দোকানীরা বিক্রি করছে তীর (৫ লিটার) ৫৫০ টাকা, ফ্রেস (৫ লিটার) ৫৫০ টাকা, রুপচাঁদা (৫ লিটার ) ৫৭৫, টাকা, খোলা তেল ১১০ টাকা, এবং পাম তেল ৯২ টাকা।

রুপচাঁদার খুলনার সরবরাহকারী জানিয়েছেন, “শনিবার পর্যন্ত পাইকারী দর হিসেবে ৫ লিটার তেলের বোতল ৫৪০ টাকা বিক্রি করছে। ঘরে আগের দরের কিছু তেল রয়েছে। কিন্তু আগামীকাল, রবিবার থেকে আমাদের আবার নতুন দর কার্যকর করতে হবে।” তিনি আরও জানান, “আগামী দু’দিনের মধ্যে আবার নতুন দরের তেল বিক্রির অনুমোদনও আমাদের হাতে পৌঁছে গেছে।”

প্রাপ্ত তথ্যে জানা গেছে, ব্রাজিল, কম্বোডিয়া, আর্জেন্টিনা এবং আমেরিকা সারাবিশ্বের তেলের চাহিদা পূরণ করে থাকে। এর মধ্যে ব্রাজিল ৫৪% বিশ্বে তেলের চাহিদা পূরণ করে। চীন এখান থেকে অগ্রীম তেল ক্রয় করে রাখছে। যে কারণে বাজারে তেলের ঘাটতি ও দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে।

এদিকে পাইকারী বাজারে তেলের দাম বৃদ্ধির খবর পেয়ে খুলনার খুচরা দোকানীরা তাদের আগের দরের তেল বাড়তি দরে বিক্রি করছেন। এতদিন তারা বোতলের গায়ে লেখা সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য থেকে ক্রেতাদের কিছুটা ছাড় দিলেও এখন উল্টো তারা বেশি নিচ্ছেন!

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536