লঙ্ঘিত মানবাধিকার: প্রত‍্যাশা সকলের সহযোগিতা

লঙ্ঘিত মানবাধিকার: প্রত‍্যাশা সকলের সহযোগিতা

মহসিন মুন্সী, বিশেষ প্রতিনিধি।
২৬ নভেম্বর, ২০২০।

মাগুরা জেলার শ্রীপুর থানার অধীনে দারিয়াপুর গ্রামের সাঈদ মিয়ার বড় কন্যা কনা খাতুন। আজ সে চরম বঞ্চনার শিকার, তার সকল অধিকার ভূলুণ্ঠিত। মাগুরা জেলার শ্রীপুর থানার গয়েশপুর ইউনিয়ন ভুক্ত চন্ডী খালি গ্রামের ফজলু মোল্লার ছোট ছেলে পলাশ মোল্লা ২০১৬ সালে উক্ত কনা খাতুনকে বিয়ে করে ঢাকায় সেটেল হয়। আয়েশেই কেটেছে তিন বছর। আড়াই বছর বয়সের একমাত্র পুত্র সিয়াম আর ২৭ দিন বয়সের কণ‍্যা মাসুরা নামক দুটি শিশু ও স্ত্রীকে ফেলে রেখে হঠাৎই আরেকটি বিয়ে করে ঢাকায় ঘর বেধেছে পলাশ। বিগত এক বছর যাবত স্ত্রী সন্তানের খোঁজ খবর না নিয়ে কোনোরকম ভরণপোষণ না দিয়ে ঢাকায় আনন্দের জীবন যাপন করছে পলাশ মোল্লা নতুন স্ত্রীকে নিয়ে। এমন পেক্ষাপটে দেশের মানবাধিকার সংস্থা, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ও মিডিয়ার দ্বারস্থ হয়ে কোন রকম সুফল পায়নি কনার পরিবার। বিপন্ন মানবিক জীবন নিয়ে এখন চোখে অন্ধকার দেখছে দুটি নাবালক শিশু কে নিয়ে এই বঞ্চিত নারী ও তার পরিবার। ঠিক যেনো বিচারের বাণী নিভৃতে কাঁদছে বিপন্ন মানবতার পক্ষ নিয়ে। অধিকার বঞ্চিত এই দুটি শিশু সন্তান ফেলে অন্য নারীকে নিয়ে সুখে দিন যাপনকারী পলাশের উপযুক্ত বিচার কামনা করছে এলাকাবাসী।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536