শ্যামনগরে দীর্ঘদিন ধরে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ভবন দখল, থানায় অভিযোগে সমাধান হয়নি।

শ্যামনগরে দীর্ঘদিন ধরে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ভবন দখল, থানায় অভিযোগে সমাধান হয়নি।

জি এম মাছুম বিল্লাহ শ্যামনগর উপজেলা প্রতিনিধি:সাতক্ষীরা শ্যামনগর উপজেলার গাবুরা ইউনিয়নের চকবারা স্লুইস গেটের ভবনটি দখলের অভিযোগ উঠেছে।গাবুরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এস,এম রবিউল ইসলাম দলীয় প্রভাব খাটিয়ে পাউবোর ১৫নং পোল্ডারের ৪নং স্লুইচগেটের খালাসী ঘর দখল করে দলীয় সাইনবোর্ড লাগিয়ে নিজস্ব কাজে ব্যবহার করছে বলে জানা যায়। গাবুরা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি শেখ আব্দুল বারী ও সাধারণ সম্পাদক শেখ মহসিন আলম জানান,ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এস এম রবিউল ইসলাম গত কয়েক বছর ধরে চকবারার সংলগ্ন স্লুইচ গেটের খালাসী ঘরটি নিজের কার্যালয় হিসেবে ব্যবহার করে আসছে। বিষয়টি আমাদের নজরে এলে আমরা তাকে সরকারি সম্পত্তি দখল করে সাংগঠনিক কার্যক্রম সহ ব্যক্তিগত কার্যক্রম পরিচালনা না করার জন্য অনুরোধ জানাই। কিন্তু সে আমাদের কথার গুরুত্ব না দিয়ে দাম্ভিকতার সাথে উক্তি সরকারি স্থাপনাটি দখল করে ছাদ এবং দেয়াল ভেঙে নিজের কার্যালয় হিসেবে ব্যবহার করছে।উল্লিখিত বিষয়ে ১৬/১১/২০২০ তারিখে গাবুরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় সংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনান্তে এস এম রবিউল ইসলামের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। এ বিষয়ে রবিউল ইসলাম বলেন, পাউবোর ভবনটি ভঙ্গুর অবস্থায় ছিল আমি সংস্কার করে দীর্ঘদিন আওয়ামী লীগের ওয়ার্ড ও নিজের অফিস হিসেবে ব্যবহার করছি ইতিমধ্যে কয়েকটি নির্বাচন পরিচালনা করেছি এখান থেকে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের অনুমতি নিয়েই আমি ঠিক করেছি ভবনটি।পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা সাজ্জাদুল হক বলেন,ঘর ঠিক করার জন্য কোন অনুমতি দেয়নি বরং উনার নামে থানায় অভিযোগ দেওয়া আছে।এ বিষয়ে শ্যামনগর থানার অফিসার ইনচার্জ নাজমুল হুদা বলেন, আমাদের কাছে কোনো অভিযোগ দেয়া হয়নি, আমি এ বিষয়ে জানিনা তবে বিষয়টা ফেসবুকে দেখেছি।গাবুরা ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার, ইউপি সদস্য ও ইউনিয়ন পুলিশিং কমিটির সভাপতি মীর আব্দুর রাজ্জাক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।এলাকাবাসীর দাবি পানি উন্নয়ন বোর্ডের ভবনটি দখলমুক্ত করে সংশ্লিষ্ট কাজে লাগানো হোক।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536