নীলফামারীতে ইউনিয়ন সমাজকর্মীর যত অনিয়ম ও দুর্নীতি

নীলফামারীতে ইউনিয়ন সমাজকর্মীর যত অনিয়ম ও দুর্নীতি

আব্দুর রউফ , স্টাফ রিপোর্টার: বর্তমান সরকার প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের সমঅধিকার ও সমমর্যাদা প্রদানে বদ্ধপরিকর। সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায়ের নিবিড় তদারকি এবং সমাজসেবা অধিদফতরের সর্বস্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের নিরলস পরিশ্রমে অসচ্ছল প্রতিবন্ধী ভাতা বিতরণে প্রায় শতভাগ সাফল্য অর্জনের জন্য কাজ করলে মানছে না গুষ্টি কয়েক ইউনিয়ন সমাজকর্মী।

নীলফামারীতে সদর উপজেলার সমাজসেবার ইউনিয়ন সমাজকর্মীর যত অনিয়ম ও দুর্নীতি। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, নীলফামারী সদর উপজেলার ইউনিয়ন সমাজকর্মী মোঃ আব্দুল কাদের চওড়া বড়গাছা ইউনিয়নের ০৬ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মোঃ রবিউল ইসলামের নিকট প্রতিবন্ধী ভাতা করে দেওয়ার জন্য ফোনে ৬ হাজার টাকা দাবী করে। টাকা দিতে না পারায় প্রতিবন্ধী ভাতার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দিলেও ভাতা পাননি। এর প্রেক্ষিতে মোঃ রবিউল ইসলাম উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মোঃ গোলাম রাব্বানীর নিকট লিখিত অভিযোগ ও অনিয়মের অডিও রেকর্ড জমা দেন।

বর্তমান সরকারের সময় প্রতিবন্ধী ভাতা কার্যক্রমে অধিকতর স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিতকরণ এবং সর্বমহলে গ্রহণযোগ্য করে তোলার জন্য, বিদ্যমান বাস্তবায়ন নীতিমালা সংশোধন করে যুগোপযোগীকরণ, উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এ ছাড়া ১০ টাকার বিনিময়ে সকল ভাতাভোগীর নিজ নামে ব্যাংক হিসাব খুলে জিটুপি পদ্ধতিতে ভাতার অর্থ পরিশোধ ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে।
কিন্তু এসব কোন কিছু তোয়াক্কা করছে না ইউনিয়ন সমাজকর্মী মোঃ আব্দুল কাদের। এ যেন টাকা ছাড়া মেলছে না ভাতা

নীলফামারী সদর উপজেলার সমাজসেবা কর্মকর্তা মোঃ গোলাম রাব্বানীর সাথে কথা হলে, প্রাথমিক ভাবে সত্যতা স্বীকার করেন। তিনি আরো জানান, মোবাইলে কথোপকথন শুনে আপাতদৃষ্টিতে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে এবং তদন্ত সাপেক্ষে উক্ত ঘটনার সাথে জড়িত ইউনিয়ন সমাজকর্মী মোঃ আব্দুল কাদেরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536