কলা ক্ষেত ধ্বংস, প্রতিকার কি!

কলা ক্ষেত ধ্বংস, প্রতিকার কি!

মহসিন মুন্সী, বিশেষ প্রতিনিধি। ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০।

“টাঙ্গাইলের মধুপুরের ১১ নং শোলাকুড়ী ইউনিয়নের পেগামারী গ্রামের এইসব জমিতে আদিবাসীরা বংশপরম্পরায় বসবাস ও চাষাবাদ করে আসছিলেন। অন‍্যান‍্যের সাথে বাসন্তী রেমা তাঁর ৪০ শতাংশ আবাদি জমিটিতে কলার চাষ করেছিলেন। ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ সকাল ১০ টার দিকে বিনা নোটিশে বন বিভাগের সহকারী কমিশনার জামাল হোসেন তালুকদারের নেতৃত্বে বাসন্তী রেমার ওই জমির সকল কলা গাছ কেটে ফেলা হয়। যার আবাদি মূল্য প্রায় ৩ লক্ষ টাকা।
ক্ষতিগ্রস্ত এবং এলাকাবাসির মত, বাস‌ন্তি রেমার কোন দোষ থাক‌লে তার বিরু‌দ্ধে অাই‌নগত ব‍্যবস্থা নেয়া যেতে পা‌রে, কিন্তু কলাগাছগুলো কেটে ফেলা অমানবিক হয়ে গেছে। এভাবে এতোগুলি চারাগাছ কেটে ফেলা কেউই মেনে নিতে পারছেন না।তাদের দাবি, অাদালত নির্ধার্রণ কর‌বে বাস‌ন্তি রেমা কতটা দোষী, কিন্তু দেশের সম্পদ ধ্বংস কর‌া কতটা যুক্তিযুক্ত।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536