একাকী যোদ্ধা- মহসিন মুন্সী

একাকী যোদ্ধা- মহসিন মুন্সী

একাকী যোদ্ধা

মহসিন মুন্সী, বিশেষ প্রতিনিধি, ফরিদপুর। ১৭ আগষ্ট, ২০২০।

শাহেদ করিমের গ্রেফতারের পর জানা গেল যে সে পূর্বেও এরকম অনেক প্রতারণা ও অন‍্যান‍্য অপরাধের সাথে জড়িত। বিভিন্ন সময়ে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব‍্যবস্থা ও নেয়া হয়েছে। এরকম একজন চিহ্নিত প্রতারক রাষ্ট্রপতি থেকে শুরু করে সকল VVIP, VIP, CIP দের সাথে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেছেন। প্রশ্ন দেখা দিয়েছে যে VVIP দের অনুষ্ঠানে কি যে কেউ ইচ্ছে করলেই অংশগ্রহণ করতে পারে? এ সমস্ত অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের জন‍্য যাচাইবাছাই পর্ব অতিক্রম করতে হয়। এই পর্বগুলি শাহেদ রা পার করেন কাদের মাধ্যমে? কোন যোগ্যতা ও ব‍্যবসা পরিচালনার বৈধ অনুমোদন না থাকলেও কিভাবে সরকারের উচ্চপদস্থ দায়িত্বশীল ব‍্যাক্তিদের উপস্থিতিতে রিজেন্ট হাসপাতালের চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠিত হয়? একটি গাড়ির যন্ত্রাংশের ব‍্যবসায়ীকে ( যার বৈধ কোন ঠিকানা ও নাই ) দেয়া হয়েছে মাস্ক, পিপিই, গ্লাভসের সরবরাহের দায়িত্ব।
ইন্সপেক্টর প্রদীপ গ্রেফতার হওয়ার পরে জানা যায় সে পূর্বে ও সাময়িক বরখাস্ত ও প্রত‍্যাহৃত হয়েছিল। একজন সাময়িক বরখাস্ত ব‍্যাক্তিকে সম্মানজনক পদকের জন‍্য মনোনয়ন দেয়া কতটুকু সঠিক ছিল, পদক দেয়া তো পরের কথা। এরকম একটি সম্মানজনক পদকপ্রাপ্তির জন‍্য তাকে মনোনয়ন দিলেন কারা, কি যোগ‍্যতায়? অনেকে বলেন প্রদীপ কুমার ওসি থাকা কালীন টেকনাফ এর মাদক ব‍্যবসা নিয়ন্ত্রণ করেছে। বাস্তবতা হচ্ছে বেশ কিছু মানুষ মারা গেছে শুধুমাত্র, মাদকের ব‍্যবসা কি কমেছে? গোয়েন্দা তথ‍্য অনুযায়ী আবদুর রহমান বদি টেকনাফের মাদক সম্রাট।বিগত সংসদ নির্বাচনের সময় বদি কে মনোনয়ন না দিয়ে দেয়া হল তার স্ত্রী কে। টেকনাফে না থাকলেও পুরো কক্সবাজার জেলায় কি এমন কোন আওয়ামীলীগ নেতা ছিলেন না যাকে ঐ সংসদীয় আসনে মনোনয়ন দেয়া যেত?
ফরিদপুরে বরকত – রুবেল কান্ডে এখন অনেক কিছুই বেড়িয়ে আসছে। এরা নিশ্চয়ই নিজের ক্ষমতায় দুঃকর্মগুলি করতে পারেনি। তাদের পেছনে মদদ ও সরবরাহ দিয়েছে কারা?

এমন বহু শাহেদ, প্রদীপ, রুবেল সমাজে বতর্মান যাদের বিপক্ষে সাধারণ জনগণ মুখ খুলতে পারে না ভয়ে। কিন্তু যাদের দায়িত্ব এই সমাজের দুষ্ট ক্ষতগুলির খোঁজখবর নেয়া ও তাদের বিরুদ্ধে ব‍্যবস্থা গ্রহনে সরকারকে সহযোগিতা করা, তারা কি করছেন? এয়ার ভাইস মার্শাল এ কে খন্দকার তার ” ১৯৭১ ভেতরে বাইরে ” বইয়ে উল্লেখ করেছেন যে ‘ গোয়েন্দাদের স্বাভাবিক চরিত্র গড়ে উঠে এমন ভাবে যে তাঁরা সেই কথাটিই বলবেন, যা শুনলে শাসকগোষ্ঠী খুশি হবে ‘। যদি আসলেই তাই হয় তবে সেটা হবে জাতির জন্য অত‍্যন্ত দুঃখ ও কলঙ্কজনক। আমরা জানি আমাদের অভিভাবক হিসাবে আছেন বঙ্গবন্ধু কণ‍্যা জণনেত্রী শেখ হাসিনা। তিনি আমাদের জন‍্য সর্বোচ্চ করার চেষ্টা করছেন এবং করবেন। কথা হচ্ছে সবকিছু যদি জননেত্রী কে নিজেকেই করতে হয় তাহলে এত এত বড় বড় নেতা আমলাদের কাজ কি?

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536