সমাজ সেবা অধিদপ্তরের ভাতা প্রদান পদ্ধতি ডিজিটালাইজেসন হচ্ছে।

সমাজ সেবা অধিদপ্তরের ভাতা প্রদান পদ্ধতি ডিজিটালাইজেসন হচ্ছে।


মোল্লা আজিজুল বরিশাল ব্যুরোঃ সময়ের সাথে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ ডিজিটাল হচ্ছে সকল প্লাটফর্ম। আধুনিক ডিজিটাল দেশ গড়তে সরকার অঙ্গীকারবদ্ধ। তাই এরই ধারাবাহিকতায় সমাজসেবা অধিদপ্তরের ভাতা প্রদানের পদ্ধতি ডিজিটালাইজেসন হচ্ছে a2i এর কারিগরি সহযোগিতায় সার্ভারের কাজ চলমান আছে, শীঘ্রই ভাতা ডিজিটালাইজেসনের মাধ্যমে ভাতা গ্রহনকারীরা ডিজিটাল সুবিধা গ্রহন করতে পারবে। ভাতা ডিজিটালাইজেসন বা (g2p) প্রোগ্রামের আওতায় সকল ভাতাভোগিদের তথ্য ডাটা এন্ট্রি করা হবে এবং সমাজ সেবা অধিদপ্তর mis জাতীয় সার্ভারে সংরক্ষণ করা হবে। অত্র কার্যক্রমটি আগামী নভেম্বর ২০২০ হতে ডিজিটাল উপায়ে ভাতার প্রথম কিস্তি বিতরণ করা হবে। ভাতাভোগী সশরীরে হাজির না হলে তার ডাটা এন্ট্রি করা হবে না। এবং গুরুতর অসুস্থ ব্যক্তির ক্ষেত্রে নিজস্ব টিম তার বাড়িতে গিয়ে ডাটা এন্ট্রি করবে। এই ডিজিটাল কর্মসূচির মাধ্যমে যারা বিগত দিনে প্রতারণা করে আসছে বিভিন্ন নামে টাকা উঠিয়ে খেয়ে সরকারের সাথে প্রতারণা করছে তাদের আর কোনো সুযোগ থাকবে না। এর ফলে অসাধু চক্রদের চিহ্নিত করতে সুবিধা হবে যেমনঃ যাদের বয়স কম তারা চিহ্নিত হবে এবং বাদ পড়বে, একই ব্যক্তি একাধিক ভাতা নিলে তা চিহ্নিত হবে, একই ব্যক্তি একাধিক দপ্তর থেকে ভাতা নিলেও তা চিহ্নিত হবে। এ বিষয়ে বরিশাল জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের কর্মকর্তা শেখ জহির উদ্দিন আহমেদ দৈনিক ভোরের অঙ্গীকার পত্রিকার রিপোর্টারকে বলেন বর্তমানে ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে ভাতা প্রদানের ফলে অনেক অসাধু ব্যক্তি ফায়দা লুটছে। তাই সরকারি সিদ্ধান্তের আলোকে a2i এর কারিগরি সহযোগিতায় সমাজসেবা অধিদপ্তরের মাধ্যমে ভাতা প্রদানের কার্যক্রমটি ডিজিটালাইজেশন হচ্ছে। এর ফলে ভাতা প্রধানের কার্যক্রমে একটি স্বচ্ছ ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে। পরে তিনি a2i কর্তিক তৈরি ভাতা ডিজিটালাইজেশনের একটি ডকুমেন্টারি ভিডিও প্রদর্শন করেন। প্রদর্শন শেষে তিনি আরো বলেন যেহেতু এই সার্ভারটি নির্বাচন কমিশন জাতীয় সার্ভারের সাথে লিংক রয়েছে তাই বরিশাল সহ বাংলাদেশের সকল ভাতাভোগিরা সুবিধা ভোগ করবেন এবং এখানে কারও প্রতারণা করার কোনো সুযোগ থাকবে না।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536