পুঠিয়ায়ায় মাতৃত্বকালীন ভাতার টাকা জোর পূর্বক কেড়ে নেওয়ার অভিযোগ!!

পুঠিয়ায়ায় মাতৃত্বকালীন ভাতার টাকা জোর পূর্বক কেড়ে নেওয়ার অভিযোগ!!

মোঃ রাজিবুল ইসলাম বাবু স্টাফ রিপোর্টারঃ-

রাজশাহীর পুঠিয়ার জিউপাড়া ইউনিয়নে দরিদ্র মা’র জন্য মাতৃত্বকালীন ভাতার টাকা জোর পূর্বক কেড়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে বৃহস্পতিবার বিকেলে ভূক্তভোগীর পিতা বাদী হয়ে পুঠিয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

থানায় জমা দেওয়া অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, রাজশাহী জেলার পুঠিয়া উপজেলার ৬ নং জিউপাড়া ইউপির ধোপাপাড়া গ্রামের মো. রমজান আলীর মেয়ে মোছা. সোনিয়া খাতুন (২৪) গত ২২ জুলাই বুধবার দরিদ্র মা’র জন্য মাতৃত্বকালীন ভাতার ৯ হাজার ৬ শত টাকা সোনালী ব্যাংক পুঠিয়া শাখা হতে উত্তোলন করেন। সেই টাকা উত্তোলন করে বাড়ী ফিরেন সোনিয়া। এরপর ধোপাপাড়া গ্রামের মো. বুলবুল আহম্মেদ (২৫) এবং সবুজ (২০) এই দুই জন তাদের বাড়িতে এসে ৯ হাজার ৬ শত টাকা কাড়িয়া নেয়।

এলাকাবাসী জানায়, বুলবুল জিউপাড়া ইউপি চেয়ারম্যানের ভাগ্নে হওয়ার সুবাদে বিভিন্ন অনিয়ম করে চলেছে। তবে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

পুঠিয়া উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মোছা. ডালিয়া পারভীন জানান, সোনিয়ার মাতৃত্বকালীন ভাতার টাকা একজন নিয়ে নিয়েছে শুনেছি, তবে অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পুঠিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল ইসলাম জানান, এ বিষয়ে একটি অভিযোগ গতকাল পেয়েছি, তদন্ত সাপেক্ষ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, ২০১৯-২০২০ অর্থ-বছরে প্রতিটি ইউনিয়নে ৮৫ জন করে উপজেলায় মোট ৫১০ জন দরিদ্র মা’র জন্য মাতৃত্বকালীন ভাতার টাকা (ইএফটির) মাধ্যমে নির্বাচিত মাদের ব্যাংক একাউন্ট নাম্বারে পাঠিয়ে দেওয়া হয়ে থাকে।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536