কোহলিকে স্লেজিং করা মানে নিজের পায়ে কুড়াল মারা

কোহলিকে স্লেজিং করা মানে নিজের পায়ে কুড়াল মারা

এভাবে স্লেজিং করে কোহলিকে আর রাগিয়ে দিতে চান না হ্যাজেলউডরা। ছবি-এএফপি

খেলা সংবাদ : বিরাট কোহলিকে স্লেজিং করার ভুল করতে চান না অস্ট্রেলিয়া ফাস্ট বোলার জশ হ্যাজেলউড।

ভুল থেকে ভালোই শিক্ষা নিয়েছেন অস্ট্রেলীয় পেসাররা। ২০১৪-১৫ মৌসুমে ভারতের অস্ট্রেলিয়া সফরকে বিরাট কোহলিকে আউট করার জন্য ‘স্লেজিং’ করার পরিকল্পনা করেছিল অস্ট্রেলিয়ারা। ডেভিড ওয়ার্নার ও মিচেল জনসন পুরো সিরিজ জুড়ে কোহলিকে স্লেজিং করেন। চার টেস্টের সেই সিরিজে কোহলির ব্যাট থেকে আসে চারটি সেঞ্চুরি।

সেই বছরই অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার আগে ইংল্যান্ড সফরে কোহলিকে মনে হয়েছিল পাড়ার ব্যাটসম্যান। জিমি অ্যান্ডারসন সুইং দিয়ে কোহলিকে আউট করছিলেন বলে কয়ে। অস্ট্রেলীয়রা যেন স্লেজিং করে ঘুমন্ত সিংহকে জাগিয়ে তুলেছিল। এরপর থেকে কোহলিকে স্লেজিং করে আউট করার পরিকল্পনা বাদ দিয়েছে অস্ট্রেলীয়রা।

অস্ট্রেলিয়া ফাস্ট বোলার জশ হ্যাজেলউড সম্প্রতি স্টার স্পোর্টসের এক অনুষ্ঠানে বলছিলেন, ‘আমি ওর সঙ্গে কথা-কাটাকাটিতে জড়াতে চাই না। আমার মনে হয় সে চায় যে বোলাররা তার সঙ্গে কথা বলুক। এটাই তার সেরা খেলাটা বের করে আনে। বিশেষ করে সে যখন ব্যাটিং করে তখন বোলারদের ওই ভুল করাটা ঠিক হবে না।’

২০১৮-১৯ মৌসুমে ভারতের অস্ট্রেলিয়া সফরে ব্যাটিংয়ের সময় কোহলিকে কেউই স্লেজিং করেনি। তবে স্বাগতিক অধিনায়ক ও ফিল্ডাররা কোহলিকে বেশ বিরক্ত করেছে স্বাগতিকেরা। বিশেষ করে অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক টিম পেইন কোহলির ব্যাটিংয়ের সময় কোহলির বেশ কয়েকবার বাগ যুদ্ধে জড়িয়েছেন।

হ্যাজেলউডের কথায় ইঙ্গিত, পরিকল্পনা করেই অধিনায়ক কোহলিকে চাপ ফেলতে চেয়েছিলেন পেইন, ‘যখন সে ফিল্ডিং করে, তখন তার মনোযোগ নিয়ে খেলা করা যায়। কিন্তু তার ব্যাটিংয়ের সময় না। তাকে তার মতো খেলতে দেওয়া উচিত। সে যদি অন্যমনস্ক থাকে তাহলে ভালো।’

ব্রায়ান লারা, স্টিভ ওয়াহ, জাভেদ মিয়াঁদাদ, ভিভ রিচার্ডস, গ্যারি সোবার্সরাও ছিলেন একই ধাঁচের। লালা-স্টিভরা ব্যাটিংয়ে নেমেই কথা চালাচালি করতে পছন্দ করতেন। বিবাদে জড়িয়ে চাঙা করতে চাইতেন নিজেকে। কোহলিও হয়তো একই চরিত্রের।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536