বাংলাদেশের বিপক্ষে যে চ্যালেঞ্জ ছিল স্টিভ ওয়াহর

বাংলাদেশের বিপক্ষে যে চ্যালেঞ্জ ছিল স্টিভ ওয়াহর

খেলা ডেস্ক : বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্টে অ্যান্ডি বিকেলের জায়গায় তরুণ ব্রেট লিকে সুযোগ দেওয়ার কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছিল অধিনায়ক স্টিভ ওয়াহকে।

নব্বই এর দশকের শেষের দিকে অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে নাকি অস্ট্রেলিয়া ‘এ’ দলটাই বেশি শক্তিশালী ছিল। মাইকেল স্লেটার ও মার্ক টেলর ছিলেন অস্ট্রেলিয়া দলের ওপেনার, অস্ট্রেলিয়া ‘এ’ দলের হয়ে ইনিংস শুরু করতেন তখন ম্যাথু হেইডেন, জাস্টিন ল্যাঙ্গার, অ্যাডাম গিলক্রিস্টরা। অস্ট্রেলিয়া জাতীয় দল সাজানোর কাজটাও তাই বেশ কঠিন ছিল। অধিনায়ক স্টিভ ওয়াহকেই মূখ্য ভূমিকা পালন করতে হতো তাতে।

সম্প্রতি স্কাই স্পোর্টসকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে সেসব কথা বলতে গিয়ে স্টিভ ওয়াহ টেনে আনেন বাংলাদেশ প্রসঙ্গ। ২০০৩ সালে বাংলাদেশর বিপক্ষে টেস্ট সিরিজেও এমনই কঠিন পরিস্থিতিতে পড়তে হয়েছিল তাঁকে।

সেবার দুই টেস্টের সিরিজ খেলতে অস্ট্রেলিয়া সফর করে বাংলাদেশ দল। টেস্ট ক্রিকেটের তখনকার ‘শিশু’ বাংলাদেশকে গুড়িয়ে দিতে ডারউইনে সবুজ উইকেট বানায় অস্ট্রেলিয়া। এক স্পিনার স্টুয়ার্ট ম্যাকগিলের সঙ্গে তিন পেসারে দল সাজাতে পছন্দ করতেন ওয়াহ। গ্ল্যান ম্যাকগ্রা ও জেসন গিলেস্পির সঙ্গে তৃতীয় পেসার হিসেবে অ্যান্ডি বিকেলের খেলার কথা শোনা যাচ্ছিল। কিন্তু ওয়াহ চাইলেন উল্টোটা। বিকেলের লাইন-লেংথের চেয়ে লি’র গতিই ছিল তাঁর বেশি পছন্দ। তরুণ ব্রেট লি’র সামনে নড়বড়ে বাংলাদেশকে ঠেলে দেওয়ার ইচ্ছে হলো অস্ট্রেলিয় অধিনায়কের। ব্রেট লির টেস্ট খেলার অভিজ্ঞতাও বাড়ল, আবার পেস সহায়ক উইকেটে বাংলাদেশকে দ্রুতআউটও করা হলো।

প্রথম টেস্ট থেকে বিকেলকে বাদ পড়ার কথা জানানোর কঠিন কাজটা অধিনায়ককেই করতে হয়েছিল। ডারউইন টেস্টের আগের দিনের কথা মনে করে ওয়াহ বলেছেন, ‘বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্টে ব্রেট লি অথবা অ্যান্ডি বিকেলের যে কোন একজনের খেলার কথা। টেস্টের আগের দিন অনুশীলন শেষে দেখলাম সবাই আমাকে এড়িয়ে চলছে। কারণ টেস্টের আগের দিন অধিনায়ক কথা বলতে আসা মানেই খারাপ খবর। আমি বিকেলের কাছে যেতেই সে হতাশায় মাথা নিচু করে ফেলল। আমি কিছু বলার আগেই সে বুঝে গিয়েছিল।

তবে অস্ট্রেলিয়াকে সর্বকালের সেরা দলে পরিণত করার কৃতিত্বটা স্টিভ ওয়াহ একা নেননি। বাদ পড়া ক্রিকেটারদের মানসিকতাকেও অস্ট্রেলিয়া দলের দাপুটে পারফরম্যান্সের বড় কারণ মনে করেন সাবেক অধিনায়ক, ‘পর দিন সবুজ উইকেটে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ে পাঠাই। ভেবেছিলাম মধ্যাহ্ন বিরতির মধ্যেই তাদের অলআউট করে ফেলব। সকালে ব্রেট লি ভালো বোলিং করেনি। লাইন-লেংথ ঠিক ছিল না। বিরতিতে বিকেল নিজেই ওকে উৎসাহ দেয়। কোথায় ভুল হচ্ছে ধরিয়ে দেয়। পরের সেশন ব্রেট লি উইকেট নেয়, ভালো বোলিং করে। পরের ১৮ মাস আমরা বোলিং আক্রমণে কোন পরিবর্তন করিনি। দলের জন্য বিকেল নিজেকে বিসর্জন দিয়েছিল।’

সাক্ষাতকারে মাইকেল কাসপ্রোভিচ, টম মুডি, স্টুয়ার্ট ম্যাকগিল, জাস্টিন ল্যাঙ্গারের মতো ক্রিকেটারদের কথাও বলেছেন ওয়াহ। অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বসেরা দলে পরিনত হওয়ার পেছনে তাদের অবদানও ছিল গুরুত্বপূর্ণ।

সংবাদ শেয়ার করুন

themesbazartvsite-01713478536